আওয়ামী নেতা ও ‘সন্ত্রাসী ছেলের’ বিচার দাবি

আপডেট: 03:05:14 21/04/2019



img
img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহে কাজী এনামুল হক মিলন ও তার ‘সন্ত্রাসী ছেলে’ কাজী চন্দনের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী।
ওই দুইজনের অত্যাচারে শহরের কলাবাগান ও কাঞ্চননগরবাসী অতিষ্ট বলে অভিযোগ এনে তারা বলছেন, বাবা-ছেলে আওয়ামী লীগের নাম ভাঙিয়ে মাদক ও সন্ত্রাসের নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছেন। দোকান থেকে জোর করে রড-সিমেন্টসহ নানা সামগ্রী নিয়ে বাড়ি তৈরি করছেন। এলাকার মানুষকে বাধ্যতামূলক চাঁদা দিতে হচ্ছে।
রোববার সকালে ঝিনাইদহ শহরের কলাবাগান ও কাঞ্চননগরপাড়ার শত শত মানুষ পোস্ট অফিস মোড়ে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেন। এর আগে তারা শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেন। মিছিলে তারা কাজী মিলন ও তার ছেলে কাজী চন্দনের ছবিসম্বলিত প্লাকার্ড ও ব্যানার বহন করে। তাতে লেখা ছিল, দীর্ঘদিন ধরে কলাবাগান ও কাঞ্চননগরসহ ঝিনাইদহের বিভিন্ন স্থানে খুন, ধর্ষণ, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছেন ওই দুই বাপ-বেটা। তারা নিরীহ মানুষের ওপর নির্যাতন-জুলুম চালিয়ে যাচ্ছেন। প্লাকার্ডে অন্যায়-জুলুম প্রতিরোধ ও অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে পুলিশ ও জেলা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।
শহরের পোস্ট অফিস মোড়ে মানববন্ধন কর্মসূচি শেষে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশ বক্তব্য রাখেন, ইসরাইল হোসেন শান্তি জোয়ারদার, রহুল কুদ্দুস দুদু, শাহিনুর রহমান লাভলু, লিয়াকত হোসেন, আব্দুল মজিদ প্রমুখ।

আরও পড়ুন