আওয়ামী লীগ সভাপতি নিজ বাড়িতে খুন

আপডেট: 02:05:56 05/12/2018



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : নওগাঁর পত্নীতলায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইছাহাক হোসেন (৭০) নিহত হয়েছেন। এ সময় তার গাড়ির ড্রাইভার দুলাল রায় আহত হয়েছেন।
মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) রাত পৌনে দশটার দিকে উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামে ইছাহাক হোসেনের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। তিনি পত্নীতলা উপজেলা নজিপুর ইউনিয়নের মামুদপুর গ্রামের মৃত খায়ের মুন্সীর ছেলে।
পত্নীতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিমলচন্দ্র বলেন, ‘প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার রাতে দলীয় কার্যালয় থেকে কাজ শেষে বাসার উদ্দেশে বের হন তিনি। গাড়ি থেকে নেমে বাসার গেটে ঢোকার সময় ওত পেতে থাকা চার-পাঁচজন তার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। এ সময় তার চিৎকারে ড্রাইভার দুলাল গাড়ি থেকে নেমে এলে তাকেও ছুরিকাঘাত করে দুর্বৃত্তরা। দুলালের চিৎকারে গ্রামবাসী এসে আহত দুইজনকে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। হাসপাতালে নেওয়ার পথে ইসাহাক হোসেন মারা যান। আহত দুলাল নজিপুর ইউনিয়নের চকদুর্গাআয়ন গ্রামের নারায়ণ রায়ের ছেলে। হত্যার ঘটনার সঠিক কারণ জানা যায়নি। দুর্বৃত্তদের গ্রেফতারের অভিযান চলছে।’
এ বিষয়ে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার দেবাশিস রায় জানান, গ্রামবাসীরা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইছাহাক হোসেন ও তার ড্রাইভার দুলাল রায়কে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই ইছাহাক হোসেন মারা যান। দুলাল রায় বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ইছাহাক হোসেনের মাথায়, বুকে ও শরীরের বেশ কিছু জায়গায় ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে।
সূত্র : বিডিনিউজ

আরও পড়ুন