আজ মাগুরা মুক্ত দিবস

আপডেট: 01:37:18 07/12/2016



img

মাগুরা প্রতিনিধি : আজ ৭ ডিসেম্বর ঐতিহাসিক মাগুরা মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে পাক হানাদার বাহিনীর কাছ থেকে মুক্তি পায় মাগুরাবাসী।
জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোল্লা নবুয়ত আলী জানান, মুক্তিযুদ্ধের শুরু থেকে মাগুরা শহরের আনসার ক্যাম্প, জেলা পরিষদ বাংলো, মধুমতি বাংলো, সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, পিটিআই, দত্ত বিল্ডিংসহ বিভিন্ন স্থানে ঘাঁটি গাড়ে পাকবাহিনী। আলবদর ও রাজাকারদের সহযোগিতায় তারা মেতে ওঠে নারী নির্যাতন ও গণহত্যায়। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে তৎকালীন ছাত্রসংঘের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক রিজু ও কবির বাহিনী অংসখ্য মানুষকে ঢাকা রোড ক্যানেলে নিয়ে হত্যা করে লাশ ভাসিয়ে দেয়। ২৬ নভেম্বর পাকবাহিনীর সঙ্গে যুদ্ধে শহীদ হন মাগুরা হাজীপুর বাহিনীর ২৮ বীর মুক্তিযোদ্ধা। এছাড়া মহম্মদপুর ও বিনোদপুরের যুদ্ধে দুই সহোদর আহম্মদ-মহম্মদ ও মুকুলসহ একাধিক মুক্তিযোদ্ধা শাহাদতবরণ করেন।
নবুয়ত মোল্লা জানান, ৬ ডিসেম্বর শ্রীপুর বাহিনীর সঙ্গে পাকবাহিনীর যুদ্ধ হয়। এ যুদ্ধে শ্রীপুর বাহিনীর সঙ্গে যোগ দেয় মিত্র বাহিনী। তারা আকাশ থেকে পাকবহিনীর ওপর বোমাবর্ষণ করে। শ্রীপুর বাহিনী ও মিত্র বাহিনীর যৌথ আক্রমণে দিশেহারা হয়ে পড়ে পাক বাহিনী। জীবন বাঁচাতে ৭ ডিসেম্বর সকালে তারা পালিয়ে মাগুরা ছেড়ে ফরিদপুরের কামারখালী চলে যায়। সঙ্গে সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিকামী জনতা স্বাধীন দেশের পতাকা নিয়ে মাগুরা শহরে বিজয় উল্লাসে মেতে ওঠে।

আরও পড়ুন