উপজেলা পরিষদ-পৌরসভা মুখোমুখি

আপডেট: 10:23:54 11/01/2019



img

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : পাইকগাছায় সীমানা প্রাচীর নির্মাণ নিয়ে উপজেলা পরিষদ ও পৌরসভা মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে। পরিষদের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পরিষদের সামনে দিয়ে সীমানা প্রাচীর নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।
অপরদিকে, সড়কের নিরাপত্তা নিশ্চিত, সড়ক প্রশস্ত ও ড্রেনেজ ব্যবস্থাপনা বন্ধ হওয়ার আশংকায় সড়কের পাশে নির্ধারিত জায়গা রেখে নিয়ম-নীতি অনুসরণ করে প্রাচীর নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন পৌর কর্তৃপক্ষ।
প্রাচীর নির্মাণের প্রতিবাদে সমাবেশ করেছে পৌর কর্তৃপক্ষ। এর আগে পৌর কর্তৃপক্ষ আদালতে একটি মামলা দায়েরও করে। সরকারি দুটি প্রতিষ্ঠান স্ব-স্ব অবস্থানে অনঢ় রয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, উপজেলা পরিষদের সীমানা প্রাচীরটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। উপজেলা পরিষদ ভবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে উপজেলা পরিষদের সামনে ও চারপাশ দিয়ে নতুন সীমানা প্রাচীর নির্মাণের উদ্যোগ নেয় পরিষদ কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যে পুরনো প্রাচীর ভেঙে উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের সামনেসহ বিভিন্ন স্থানে নতুন প্রাচীর নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে।
উপজেলা পরিষদের এই কাজের প্রতিবাদ জানিয়েছে পৌর কর্তৃপক্ষ। এর প্রতিবাদে শুক্রবার বিকেলে প্রাণিসম্পদ অফিসের সামনে পৌরসভার মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীরের সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়।
প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, নিয়ম-নীতি উপেক্ষা করে উপজেলা পরিষদ সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করছে। ফলে, উপজেলা সদরে যাতায়াতের প্রধান সড়কটি এক দিকে প্রশস্ত করার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবে। অপরদিকে, বন্ধ হয়ে যাবে ড্রেনেজ ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা। অনিশ্চিত হয়ে পড়বে সড়কের নিরাপত্তা।
বক্তারা সড়কের পাশে নির্দিষ্ট জায়গা রেখে নিয়ম-নীতি অনুসরণ করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করার জন্য উপজেলা প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।
প্রতিবাদ সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাব সভাপতি অ্যাডভোকেট এফএমএ রাজ্জাক, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কৃষ্ণপদ মণ্ডল, পৌর কাউন্সিলর শেখ মাহবুবুর রহমান রঞ্জু, এসএম ইমদাদুল হক, কামাল আহম্মেদ, সেলিম নেওয়াজ, রবিশংকর মণ্ডল, এসএম তৈয়েবুর রহমান, অহেদ আলী গাজী, গাজী আব্দুস সালাম, আলাউদ্দীন গাজী, সরবানু বেগম, বাস মালিক সমিতির শেখ জাহিদুল ইসলাম, মো. আব্দুল গফফার মোড়ল, তাঁতিলীগনেতা দেবব্রত রায়, যুবলীগনেতা আজিবর মোড়ল, শ্রমিকনেতা শেখ মিথুন মধু, ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম, সাবেক কাউন্সিলর প্রভাষ মণ্ডল, মৃত্যুঞ্জয় সরদার, লুৎফর রহমান, আমিরুল ইসলাম, কেষ্টপদ মণ্ডল ও আক্তার গোলদার।

আরও পড়ুন