ঋণের কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ দিনমজুরের আত্মহত্যা!

আপডেট: 07:44:25 16/07/2017



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে এনজিওর ঋণের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে রনি হাওলাদার (৪৩) নামে এক দিনমজুর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে পরিবারের অভিযোগ।
রোববার বেলা ১২টার দিকে শহরের ধর্মতলা কদমতলা এলাকায় ঘটে।
নিহত রনি হাওলাদার ধর্মতলা এলাকার নূর ইসলামের বাড়ির ভাড়াটিয়া।
নিহতের স্ত্রী রুবিনা বেগম সুবর্ণভূমিকে বলেন, আমার স্বামী কখনো রিকশা চালাতেন, কখনো রংয়ের কাজ করতেন আবার কখনো লেবারের কাজও করতেন। টানাটানির সংসার, তাই বেশ কিছুদিন আগে আশাসহ তিনটি এনজিও থেকে ২০ হাজার, ১৬ হাজার এবং ২০ হাজার টাকা লোন নিই। সপ্তাহের তিনদিন ৫০০ টাকা করে কিস্তি শোধ দিতে হতো। রোববার সকালে আশা এনজিওর কিস্তির টাকা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ঘরে কোনো টাকা ছিল না।
স্বামীকে যেকোনো জায়গায় একটি কাজে যেতে বলেন যাতে আজকের কিস্তির টাকা শোধ করা যায়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হলে রনি তার স্ত্রীকে বাড়ি থেকে বের করে দিয়ে ঘরের আড়ার সাথে দরজার পর্দা দিয়ে গলায় ফাঁস দেন।
স্থানীয়রা টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার এম আব্দুর রশিদ সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘হাসপাতালে আনার আগেই রনি হাওলাদারের মৃত্যু হয়।’
কোতয়ালী থানার এসআই শহিদুল ইসলাম বলেন, শুনেছি, ঋণের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে রনি নামে এক দিনমজুর আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

আরও পড়ুন