কমিউনিটি ক্লিনিকে নারীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ

আপডেট: 06:36:30 16/04/2018



img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহে কমিউনিটি ক্লিনিকে এক নারীর শ্লীলতাহানি করার অভিযোগ করা হচ্ছে।
নজরুল ইসলাম নামে এক স্বাস্থ্য সহকারীর বিরুদ্ধে সোমবার ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডাক্তার রাশেদা সুলতানার কাছে লিখিত অভিযোগ করেন ওই নারী। ঘটনাটি সদর উপজেলার মধুহাটী ইউনিয়নের চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকের।
ওই এলাকার ইউপি মেম্বার আলীমুদ্দীন ও গোলাম রসুল বলেন, স্থানীয় এক গৃহবধূকে ফুঁসলিয়ে চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকে নিয়ে যান নজরুল ইসলাম। সেখানে ওই গৃহবধূর শ্লীলতাহানি করা হয়। এ সময় ওই নারীর সঙ্গে থাকা বাচ্চা মেয়ে বাড়ি এসে সবাইকে ঘটনা বলে দেয়। নজরুল ইসলামের স্ত্রী চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকের হেলথ প্রোভাইডার হিসেবে কর্মরত। নজরুল ইসলাম স্বাস্থ্য সহকারী হলেও ফিল্ডে না গিয়ে স্ত্রীর পক্ষে চিকিৎসা সেবা দেন। এলাকার একাধিক নারীর অভিযোগ, নজরুল ইসলাম চিসিৎসা নিতে আসা মেয়েদের শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেন।
বিষয়টি নিয়ে মধুহাটী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফারুক আহম্মেদ জুয়েল বলেন, ‘ঘটনাটি হয়তো তেমন না। ওই নারীর বাচ্চার মাথা কেটে গিয়েছিল। সে জন্য সে চিকিৎসা নিতে আসে। আমরা নজরুলকে সরিয়ে দিচ্ছি।’
তিনি আরো বলেন, ‘গ্রাম্য পলিটিক্সের কারণে নজরুলের বিরুদ্ধে এমন অপপ্রচার হতে পারে।’
অভিযুক্ত নজরুল ইসলাম বলেন, ‘গ্রামের এক শ্রেণির মানুষের সাথে আমার সামাজিক শত্রুতা রয়েছে। তারাই এই অপবাদ ছড়াচ্ছে।’
ঝিনাইদহের সিভিল সার্জন ডা. রাশেদা সুলতানা জানান, ‘আমি এধরনের একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তের জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সাজ্জাদ হোসেনকে দায়িত্ব দিয়েছি। তদন্তে কেউ দোষী প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেব।’
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমারও প্রশ্ন- নজরুল তো স্বাস্থ্য সহকারী। তাকে তো চান্দুয়ালী কমিউনিটি ক্লিনিকে দায়িত্ব পালনের কথা না। তিনি তো ফিল্ডে থাকবেন। তিনি কেনো সেখানে ছিলেন?’

আরও পড়ুন