কাস্ত্রোর ছেলের আত্মহত্যা

আপডেট: 01:38:03 02/02/2018



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : কিউবা বিপ্লবের মহানায়ক ফিদেল কাস্ত্রোর ছেলে ফিদেল অ্যাঞ্জেল ক্যাস্ত্রো ডিয়াজ-বালার্টের (৬৮) মরদেহ রাজধানী হাভানার একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। কিউবা কর্তৃপক্ষ বলছে, মানসিক অবসাদে ভুগতে থাকা ফিদেলপুত্র ‘নিজের জীবন নিজেই নিয়েছেন’।
ফিদের কাস্ত্রোর প্রথম ছেলে কিউবার মানুষের কাছে ‘ফিদেলিতো’ নামে পরিচিত ছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি ছিলেন একজন পদার্থবিজ্ঞানী।
কিউবার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম গ্রানমার এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘মানসিক অবসাদের কারণে কয়েক মাস ধরেই ফিদেল অ্যাঞ্জেল কাস্ত্রো ডিয়াজ-বালার্ট চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে ছিলেন। আজ সকালে তিনি নিজের জীবন নিজেই নিয়েছেন।’
রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়েছে, মানসিক অবসাদের কারণে ফিদেলিতো কিছুদিন হাসপাতালেও ছিলেন।
ফিদেলপুত্রের শেষকৃত্য পারিবারিকভাবে হবে। তবে এ সম্পর্কে আর বিশেষ কিছু জানানো হয়নি।
ফিদেলিতো কিউবা অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সের ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং কিউবান কাউন্সিল অব স্টেটের উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করছিলেন। তিনি দ্বীপরাষ্ট্রটির প্রতিনিধি হিসেবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নানা আন্তর্জাতিক সেমিনারে অংশগ্রহণ করেছেন। তিনি বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থেরও প্রণেতা।
কিউবা বিপ্লবের নেতা ফিদেল কাস্ত্রো দীর্ঘদিন দেশটির প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ৯০ বছর বয়সে ২০১৬ সালের নভেম্বরে মারা যান। এখন কিউবার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তার ভাই রাউল কাস্ত্রো।
সূত্র : এনটিভি

আরও পড়ুন