কুইন্সে ভুল চিকিৎসায় শিশু মৃত্যুর অভিযোগ

আপডেট: 08:12:41 13/07/2017



স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে ডাক্তারের ‘ভুল চিকিৎসায়’ তিনদিন বয়সী এক ছেলেশিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ। এ ঘটনায হাসপাতালের কর্মচারী এবং শিশুটির পরিবারের মধ্যে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে ।
বৃহস্পতিবার ভোরে যশোর শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে (কুইন্স হাসপাতাল) এ ঘটনাটি ঘটে।
যশোর শহরতলির চাউলিয়া গ্রামের মিলন হোসেন সুবর্ণভূমিকে বলেন, তার চাচা আসলাম হোসেনের স্ত্রী তানিয়া বেগম গত ১১ জুলাই একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেন কুইন্স হাসপাতালে। তিনি হাসপাতালের ৪র্থ তলায় ৪০৯ নম্বর কেবিনে ছিলেন। গত দু’দিন শিশুটি ভাল ছিল। বৃহস্পতিবার ভোর ৪টার দিকে শিশুটির শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। এসময় হাসপাতালের ডাক্তার শিশুটিকে কী একটি ওষুধ খেতে দেয়। এর কিছুক্ষণের মধ্যে শিশুটি মারা যায়। পরে তাদের পরিবারের লোকজন এসে ভুল চিকিৎসায় শিশুটি কেন মারা গেল জানতে চাইলে হাসপাতালের কর্মচারীরা তাদের মারপিট করে আহত করে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়।
হাসপাতালেরে ব্যবস্থাপক মিঠু সাহা ডাক্তার মাহফুজুর রহমানের উদ্বৃতি দিয়ে সুবর্ণভূমিকে বলেন, হাসপাতালে তিনদিনের শিশুর খাদ্য নালিতে সমস্যা ছিল। ভোর ৪টার দিকে তাকে কোনো ওষুধ দেওয়া হয়নি। শিশুটির মা তাকে বুকের দুধ খাওয়ান এবং খাদ্য নালিতে দুধ আটকে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। এর পরে চাউলিয়া গ্রাম থেকে ১২টি মোটরসাইকেলে করে ১৮ জন লোক এসে হাসপাতালের কর্মচারীদের মারপিট শুরু করে। এসময় হাসপাতালের নার্সরা একটি কক্ষে ঢুকে ভেতর থেকে দরজা দিয়ে রক্ষা পায়। থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়। পরে হাসপাতালের এমডি হুমায়ুন কবীরের সাথে শিশুটির পরিবারের আলাপ-আলোচনা হলে সবাই চলে যায়।
কোতোয়ালী থানার এসআই জসিম উদ্দিন খান বলেন, তিনি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে জানতে পারি, দু’পক্ষের সাথে আলোচনার মাধ্যমে ঘটনা মীমাাংসা হয়ে গেছে।

আরও পড়ুন