কুষ্টিয়ায় ধর্ষকের যাবজ্জীবন

আপডেট: 02:38:57 25/03/2019



img

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণের দায়ে মো. রাকিব ওরফে রাকিবুল নামের এক আসামিকে সাজা দিয়েছেন আদালত।
অপহরণের দায়ে তাকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৭ ধারা মোতাবেক ১৪ বছর কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ধর্ষণের দায়ে একই আইনের ৯(১) ধারায় ধর্ষনের দায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ হয়েছে।
আজ সোমবার বেলা ১২টায় কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান এই রায় ঘোষণা করেন।  দণ্ডিত রাকিব জামিন নিয়ে পলাতক রয়েছে।
কুষ্টিয়া নারী ও শিশু আদালতের পিপি আকরাম হোসেন দুলাল জানান, ২০১৬ সালের ২৪ জানুয়ারি দুপুরে জেলার দৌলতপুর উপজেলার একটি গ্রামের কালেক সর্দারের ছেলে মো. রাকিব ওরফে রাকিবুল ভিকটিম ওই স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে আটকে রেখে ধর্ষণ করে। এই ঘটনায় ছাত্রীর ভাই বাদী হয়ে ঘটনার পরের দিন ২৫ জানুয়ারি রাকিব ওরফে রাকিবুলকে আসামি করে দৌলতপুর থানায় একটি মামলা করেন। শুনানি শেষে আদালত আজ এই রায় প্রদান করেন।

আরও পড়ুন