কুষ্টিয়ায় পরস্পরের হাতে দুই তরুণ খুন

আপডেট: 06:07:12 14/01/2018



img
img

শ্যামলী খন্দকার, কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়া সদর উপজেলা রোডে দিনদুপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্রসহ দুই যুবক নিহত হয়েছেন। এরা একজন আরেকজনের হাতে খুন হন।
আজ রোববার বেলা ১১টার দিকে সদর উপজেলা পরিষদের সামনে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত শামীম (২৫) ও কলেজ ছাত্র সোহান (২০)- দুইজনই উপজেলা রোডের বাসিন্দা।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্থানীয় ডাবলু হোসেনের ছেলে নিহত শামীমের বাড়ির পাশে খোলা জায়গায় তোফাজ্জেল মণ্ডলের ছেলে আমলা কলেজের ছাত্র সোহান কয়েকজন বন্ধু নিয়ে প্রায়ই আড্ডা দেয়। আজ সকালে শীত নিবারণে আগুন জ্বালানোর জন্য সোহান বন্ধুদের সঙ্গে শামীমের বাড়ির পেছন থেকে পরিত্যক্ত কাঠের খড়ি নিয়ে যাচ্ছিল। এসময় শামীমের মা টের পেয়ে বাধা সৃষ্টি করায় কথাকাটাকাটি হয়। পরে শামীম এলে তার সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয়। এসময় সোহান ফিরে এসে নিজের বাড়ির সামনের গলিতে বন্ধুদের নিয়ে অবস্থান করে। সকাল সাড়ে দশটার দিকে শামীম বাড়ি থেকে বাইসাইকেলযোগে বের হয়ে ওই গলির সামনে পৌঁছালে সোহান বন্ধুদের নিয়ে ছুরি হাতে তাকে আক্রমণ করে। এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতের একপর্যায়ে আহত শামীম হাত থেকে ছুরি কেড়ে নিয়ে উল্টো সোহানকেওআঘাত করে। এসময় স্থানীয়রা ছুটে এলে অন্যরা পালিয়ে যায়। এলাকাবাসী শামীম ও সোহানকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দুইজনকেই মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত ডাক্তার।
হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. তাপসকুমার পাল জানান, এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তাদের মৃত্যু হয়েছে।
কুষ্টিয়ার সহকারী সিনিয়র পুলিশ সুপার নূর-ই-আলম সিদ্দিকী জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রকৃত ঘটনা অনুসন্ধান ও ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের ধরার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

আরও পড়ুন