কোটচাঁদপুরে মৎস্যজীবীকে হাতুড়িপেটা

আপডেট: 02:57:50 11/02/2018



img

কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : কোটচাঁদপুর সরকারি বলুহর বাঁওড়ের মাছ লুট করতে বাধা দেওয়ায় ৮-১০ জন উচ্ছৃঙ্খল যুবক হাতুড়ি ও রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে শান্তি হালদার (৫০) নামে এক মৎস্যজীবীকে।
আহত শান্তি হালদার জানান, শনিবার দুপুরে মৎস্যজীবীরা বাঁওড় থেকে মাছ ধরে সিঙ্গিয়া ঘাটে নামান। এ সময় বাঁওড়-সংলগ্ন বলুহর গ্রামের তরিকুল, আক্কাস, তাপস, রামচন্দ্রপুর গ্রামের সোহাগসহ ৮-১০ দুর্বৃত্ত মাছ ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। বাধা দেওয়ায় ওই দুর্বৃত্তরা তাকো (শান্তি হালদারকে) মারধর করে চলে যায়। সন্ধ্যার দিকে শান্তি হালদার বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে বলুহর প্রাইমারি স্কুলের সামনে ওত পেতে থাকা তরিকুলসহ ৪-৫ জন শান্তি হালদারকে একা পেয়ে হাতুড়ি ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা শান্তি হালদারকে কোটচাঁদপুর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।
বাঁওড় সমিতির সেক্রেটারি রণজিৎ হালদার বলেন, ‘ওই সব উচ্ছৃঙ্খল যুবক আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের দোহাই দিয়ে বাঁওড়ের সম্পদ লুটপাট করে আসছে। ভয়ে আমরা তাদের কিছুই বলতে পারি না।’
বাঁওড় ব্যবস্থাপক সিদ্দিকুর রহমানের সঙ্গে চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা যায়নি।
বাঁওড়ের ক্ষেত্র সহকারী কবির হোসেন বলেন, ‘আমি বিষয়টি শুনেছি। হাসপাতালে যাচ্ছি আহত শান্তি হালদারের খোঁজ-খবর নেওয়ার জন্য।’
কোটচাঁদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লবকুমার সাহা বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আরও পড়ুন