খাদ্য কর্মকর্তার অস্বাভাবিক মৃত্যু

আপডেট: 05:07:53 23/08/2019



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে বদরুল আলম (৪২) নামে একজন খাদ্য কর্মকর্তা অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে।
নিহতের বাবা নিজার আলী গাজী অভিযোগ করেছেন, তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) দুপুরে যশোর ডায়রিয়ায় অঅক্রান্ত হয়ে তিনি মারা যান। 
নিহতের মরদেহ যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।
বদরুল আলম খুলনার মানিকতলায় ফুড ইনসপেক্টর হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
যশোর কোতোয়ালি থানার এসআই ফকির ফেরদৌস নিহতের পরিবারের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে ফেরদৌস ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হন।  তাকে হসপিটালে ভর্তি না করে বাসায় চিকিৎসা দেওয়ার কারণে তার মৃত্যু হয়।
নিহতের বাবা নিজার আলী অভিযোগ করেছেন, তার পুত্রবধূ পিংকি তার লোকজনকে ছেলেকে চেতনানাশক ইনজেকশন দেওয়ার সে মারা গেছে। 
নিহতের ভগ্নিপতি জুলফিকার আলী জানান, তার শ্যালক কর্মকর্তা অঢেল টাকা ও সম্পত্তির মালিক।  তার যদি ডায়রিয়া হয় তাহলে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়নি কেন।   তাছাড়া মৃত্যুর পর
তড়িঘড়ি মাটি দেওয়া হচ্ছে কেন।  তার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ ডাক্তাররাই বলতে পারবেন।  তবে, এ মৃত্যু খুবই রহস্যজনক মনে হচ্ছে।
যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, বদরুল আলমের মৃত্যু কারণ হিসেবে তার বাবার দাবি, ডায়রিয়ায় ছেলের মৃত্যু হয়নি।  এটিকে হত্যাকাণ্ড মনে করছেন তিনি।   সেকারণে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট আসার পরে মৃত্যুর মূল কারণ জানা যাবে।
নিহত বদরুল যশোরের মণিরামপুর উপজেলার ভরতপুর এলাকার বাসিন্দা।  তিনি যশোর উপশহরের ডি-ব্লকে বসবাস করতেন।

আরও পড়ুন