খুলনায় পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ

আপডেট: 04:08:54 28/11/2018



img
img

খুলনা অফিস : খুলনা জেলা পুলিশের ফায়ারিং সেন্টারে ফায়ারিং ট্রেনিংয়ের সময় নায়েক আবু মুছা (২৫) নামে এক পুলিশ সদস্য নিজের রাইফেলের গুলি লক্ষভ্রষ্ট হয়ে আহত হয়েছেন। তিনি বরিশাল জেলা পুলিশে কর্মরত।
গুরুতর আহত অবস্থায় আবু মুসাকে প্রথমে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় পরে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে তাকে। ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে মুছাকে।
মহানগরীর শিরোমণিস্থ খুলনা জেলা পুলিশের ফায়ারিং সেন্টারের ফায়ারিং রেঞ্জে বুধবার (২৮ নভেম্বর ) বেলা ১১টায় বার্ষিক ফায়ারিং ট্রেনিংয়ের সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে খুলনা পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের (পিটিসি) কমান্ড্যান্ট শেখ ওমর ফারুক বলেন, আবু মুছাকে তাৎক্ষণিকভাবে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ফায়ারিংয়ের সময় নয় নম্বর টার্গেটে ফায়ার করার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন বরিশাল জেলা পুলিশের নায়েক আবু মুছা (নায়েক নম্বর ৪৮)। নিজের অস্ত্রে গুলি লোড দেওয়ার পরে গুলি বের হচ্ছিল না। অস্ত্রটি সচল করার সময় হঠাৎ গুলি বেরিয়ে তার পেটে বিদ্ধ হয়। সঙ্গে সঙ্গে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকায় নেওয়া হয়।
খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিটি পুলিশিং) সোনালী সেন জানান, এক রাউন্ড গুলি লক্ষভ্রষ্ট হয়ে মুছার পেটের নিচের অংশে লাগে।

আরও পড়ুন