চেয়ারম্যানের শালিসে মেম্বার পেটালেন কৃষকদের

আপডেট: 10:13:57 11/07/2018



img

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি : কলারোয়ায় জোরপূর্বক জমি ভোগদখল করার প্রতিবাদ করায় শালিসি বৈঠকে তিন নিরীহ কৃষককে মারপিট করে আহত করার অভিযোগ উঠেছে ইউপি সদস্য আওয়ামী লীগ নেতা ইবাদুল ইসলামসহ তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে।
ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার দুপুরে উপজেলার সরসকাটি বাজারে এক নম্বর জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের সামনে।
মারপিটের শিকার ব্যক্তিদের মধ্যে আলাউদ্দীন নামে একজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় কলারোয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।
অভিযোগে বলা হয়েছে, উপজেলার গাজনা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক মোড়লের ছেলে আলাউদ্দীন একজন কৃষক। তিনিসহ এলাকার বেশ কিছু কৃষক একই গ্রামের আব্দুল খালেক মোড়লের ছেলে ইউপি সদস্য ইবাদুল ইসলামের কাছে ১৫০ টাকার স্টাম্পে লেখা চুক্তি মোতাবেক তিন বছরের জন্য জমি লিজ দেন। কিছু দিন আগে মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় আলাউদ্দীনসহ ওই কৃষকরা ইউপি সদস্যকে তাদের জমি ছেড়ে দিতে বলেন। কিন্তু ইবাদুল টালবাহানা শুরু করেন। পরে বিষয়টি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শামছুদ্দীন আল মাসুদ বাবুর কাছে জানালে তিনি বুধবার ইউনিয়ন পরিষদে উভয় পক্ষকে নিয়ে শালিসি বৈঠকে বসেন। শালিসে উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে ইউপি সদস্য, ভাই সিরাজুল, ছেলে বাপ্পি ও শিমুল ঐক্যবদ্ধ হয়ে কৃষক আলাউদ্দীন, মুনছুর আলী, সাহাবুদ্দীনকে এলোপাতাড়ি মারপিট করে গুরুতর আহত করে। এর মধ্যে আলাউদ্দীনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ইউপি চেয়ারম্যান শামছুদ্দীন আল মাসুদ বাবু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লবকুমার নাথ জানান, অভিযোগটি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন