চৌগাছায় প্রেমিকাকে ধর্ষণ, অবস্থা গুরুতর

আপডেট: 06:17:58 09/02/2018



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরের চৌগাছায় এক কলেজছাত্রী (২০) ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করা হচ্ছে। গুরুতর অবস্থায় তিনি যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
মেয়েটি চৌগাছা ডিগ্রি কলেজে দ্বিতীয় বর্ষে লেখাপড়া করেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে চৌগাছা উপজেলার মাধবপুর গ্রামের একটি বাড়িতে কথিত প্রেমিক তাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে।
মেয়েটির মা সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘বাপ্পি নামে এক সহপাঠীর সাথে তার সম্পর্ক ছিল। বৃহস্পতিবার দুপুরে আমার মেয়েকে বেড়ানোর নাম করে বাপ্পি তার ফুপুবাড়ি মাধবপুর গ্রামে নিয়ে যায়। সেখানে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে বাপ্পি। এর ফলে প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়ে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়ে।’
‘এঘটনা আঁচ করতে পেরে আমরা মেয়েকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি। কিন্তু অবস্থা গুরুতর হওয়ায় ডাক্তার তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করে। রাত সোয়া দশটার দিকে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালের এনে ভর্তি করি,’ বলছিলেন মেয়েটির মা।
হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার আব্দুর রহিম মোড়ল সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘ওই মেয়েটি ধর্ষণের অভিযোগ করছে। তার গোপনাঙ্গে ক্ষতচিহ্ন রয়েছে, সেখান থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণও হয়েছে। গাইনি ডাক্তাররা বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছেন। মেডিকেল রিপোর্ট আসার পর বলা যাবে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে কি না।’
জানতে চাইলে চৌগাছা থানার ওসি খন্দকার শামিম উদ্দিন সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘এরকম ঘটনা আমার জানা নেই। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেব।’

আরও পড়ুন