চৌগাছায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাসহ আহত ৩

আপডেট: 01:15:32 09/09/2018



img

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : চৌগাছায় প্রতিপক্ষের হামলায় চৌগাছা সদর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি ইমরান হোসেনসহ তিনজন মারাত্মক জখম হয়েছেন।
গাছিদার আঘাতে আহত ইমরান ও শাহজালাল নামে আরেকজনকে চৌগাছা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর নিজাম নামে আহত অন্যজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
শনিবার সন্ধ্যার আগ দিয়ে উপজেলার কাকুড়িয়া গ্রামের বাঁওড়ের ধারে এ ঘটনা ঘটে।
হাসপাতালে আহত স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ইমরান জানান, তিনি কাকুড়িয়া বিলে মাছের চাষ করেন। বিল পাহারায় নিযুক্ত নৈশপ্রহরীর জন্য তৈরি ঘরে কাকুড়িয়া গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী খাইরুল ও আলী কিছুদিন আগে ফেনসিডিল রাখে। এঘটনায় পুলিশ খাইরুলকে আটকও করেছিল।
‘আমরা ফেনসিডিল রাখতে নিষেধ করায় তারা দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়। পরে আমরা নৈশপ্রহরীর ঘর সরিয়ে বিলের অন্যপারে স্থানান্তর করি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা বিল থেকে বিভিন্ন সময় মাছ লুট করে।’
তিনি বলেন, ‘শনিবার বিকেলে আমি, নিজাম ও আমার ভাগ্নে শাহাজালাল এ বিষয়ে নিয়ে খাইরুলের সাথে কথা বলছিলাম। এক পর্যায়ে কথাকাটাকাটির সময়ে খাইরুল আমাকে চড়-থাপ্পড় মারে। সাথে সাথেই খাইরুলের ভাই মাদক ব্যবসায়ী আলী ওরফে নুলো আলী গাছিদা দিয়ে শাহাজালালের ঘাড়ে কোপ মারে। ঠেকাতে গেলে আমার মাথায় ও নিজামের পিঠেও কোপ মারে। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে আমাদের চৌগাছা হাসপাতালে ভর্তি করে।’
রাত সাড়ে আটটার দিকে এবিষয়ে মামলা করতে আহতদের স্বজনরা চৌগাছা থানায় যান।
হাসপাতালে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ও হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আওরঙ্গজেব বলেন, আহত ইমরান ও শাহাজালালকে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। তাদের আঘাত গুতুতর। আর নিজামকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
এ রিপোর্ট লেখার সময় রাত নয়টায় চৌগাছা থানার ডিউটি অফিসার এএসআই সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘এবিষয়ে এখনো পর্যন্ত কোনো অভিযোগ পাইনি।’

আরও পড়ুন