জনপ্রিয় সংগঠক দুলুর মৃত্যু

আপডেট: 01:23:39 09/07/2018



img

স্টাফ রিপোর্টার :  মণিরামপুরের রাজগঞ্জ এলাকার জনপ্রিয় মুখ হাফিজুর রহমান দুলু মারা গেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।
রোববার দিনগত গভির রাতে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন। যশোর জেনারেল হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় রাত দেড়টার দিকে তিনি মারা যান।
প্রায় ৪৯ বছর বয়সী দুলু কপোতাক্ষ বাঁচাও আন্দোলন মণিরামপুর উপজেলা কমিটির আহ্বায়ক, জাতীয় কৃষক সমিতি যশোর জেলা কমিটির সহ-সভাপতি, ওয়ার্কার্স পার্টি জেলা কমিটির সদস্য ছিলেন।
বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি যশোর জেলা কমিটির সেক্রেটারি জিল্লুর রহমান ভিটু জানান, রোববার রাত সাড়ে আটটার দিকে দুলুর বুকে ব্যথা অনুভূত হয়। এরপর তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত দেড়টার দিকে তিনি মারা যান।
তিনি জানান, আজ বাদ জোহর মণিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জ বাজারে তার প্রথম নামাজে জানাজা হবে। বাদ আছর গ্রামের বাড়ি দ্বিতীয় নামাজে শেষে তাকে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হবে।
দুলু যশোরের মণিরামপুর উপজেলার রামনাথপুর চালুহাটি গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। গত শতকের আশির দশকে ছাত্রমৈত্রীর মাধ্যমে রাজনৈতিক অঙ্গনে তার প্রবেশ ঘটে। সদা হাস্যোজ্জ্বল, অমায়িক ব্যবহার আর সব সময় সাধারণ মানুষের স্বার্থের পক্ষে দাঁড়ানোর কারণে এলাকায় তিনি জনপ্রিয় ছিলেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি নদ-নদী বাঁচানোর দাবিতে আন্দোলন গড়ে তোলা ছাড়াও কৃষক ক্ষেতমজুরদের দাবি-দাওয়া নিয়ে সোচ্চার ছিলেন।
হাফিজুর রহমান দুলু স্ত্রী, দুই ছেলেমেয়ে, আত্মীয়-স্বজনসহ বহু অনুসারী ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
তার মৃত্যুতে ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরো সদস্য ও জেলা সভাপতি ইকবাল কবির জাহিদ এবং সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান ভিটু শোক প্রকাশ করেছেন।

আরও পড়ুন