জোড়া খুনে ব্যবহৃত অস্ত্রশস্ত্র ইউপি কার্যালয়ে!

আপডেট: 06:45:38 10/10/2018



img
img

বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বহুল আলোচিত ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলামের কার্যালয় থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।
অস্ত্রগুলো হলো, পাঁচটি রামদা, তিনটি চাপাতি, একটি ছুরি, একটি হ্যামার ও রক্তমাখা একটি তালের ডাসাসহ (লাঠি) বেশকিছু লাঠিসোটা।
বুধবার বিকেলে উপজেলার দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে তল্লাশি করে এগুলো উদ্ধার করে পুলিশ।
মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম আজিজুল ইসলাম বলেন, ১ অক্টোবর বিকেলে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তার সহযোগীদের নিয়ে দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনছার আলী দিহিদার ও সাবেক যুবলীগ নেতা শুকুর শেখকে হত্যা করে। এ ঘটনার পরই ইউনিয়ন পরিষদটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ ঘটনায় ৪ অক্টোবর রাতে ৩১ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। মামলার তদন্তের স্বার্থে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে তল্লাশি চালিয়ে ধারালো অস্ত্র ও রক্তমাখা লাঠিসোটা উদ্ধার করা হয়।
এ ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ফকির ইসলাম, ইউনিয়ন পরিষদের দফাদারসহ এজাহারভুক্ত ১৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত আছে।

আরও পড়ুন