জয়িতা রিতা

আপডেট: 02:11:45 24/12/2017



img

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি : অভয়নগর উপজেলার সুন্দলী ইউনিয়নের ফুলেরগাতী গ্রামের অভাব অনটনের সংসারে বেড়ে ওঠেন রিতা রায়। ছোটবেলাতেই বিয়ের পিঁড়িতে বসতে হয় তাকে।
বিয়ের কিছুদিন পরেই শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে স্বামীকে নিয়ে বাবার বাড়ি আশ্রয় নেন তিনি। খুবই কষ্টে চলছিল তাদের সংসার। আয়-রোজগারের কোনো উপায় না থাকায় সুন্দলী গ্রামের বীরেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের ছেলে সত্য বিশ্বাসের কাছ থেকে ৫০ টাকা ধার নিয়ে সুন্দলী বাজারে কয়েক বছর আগে সিঙাড়া-পেঁয়াজির দোকান দেন। ধীরে ধীরে আয় বাড়তে থাকে। একপর্যায়ে মিষ্টি তৈরির কাজও শুরু করেন তিনি। দোকানের আয় বাড়তে থাকে। স্থায়ী দোকান ভাড়া নিয়ে মিষ্টি, সিঙাড়া, পরোটা ও ভাতের দোকান শুরু করেন রিতা রায়। এখন তিনি স্বাবলম্বী। অভয়নগর উপজেলার সুন্দলী বাজারের ‘হোটেল মিতা সুইটস’-এর স্বত্বাধিকারী তিনি। স্বামী-সংসার নিয়ে সাচ্ছন্দে জীবন কাটাচ্ছেন।
তাদের একমাত্র মেয়ে যশোর সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছেন। রিতা রায়ের দোকানে এখন চার নারী ও দুইজন পুরুষ কাজ করেন। সম্প্রতি সরকারিভাবে তাকে ‘জয়িতা’ও ঘোষণা করা হয়েছে।