ঝিকরগাছায় দেবরের হাতে ভাবি খুন

আপডেট: 03:17:35 12/03/2019



img

স্টাফ রিপোর্টার : তুচ্ছ ঘটনায় যশোরের ঝিকরগাছায় দেবর, সন্তান ও জামাইয়ের মারপিটে মারা গেছেন খাদেজা বেগম (৫০) নামে এক গৃহবধূ।
সোমবার (১১ মার্চ) রাতে ঝিকরগাছা উপজেলার গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের গুলবাগপুর গ্রামে ঘটে।
নিহত খাদেজা বেগম ওই গ্রামের নাবেদ আলীর স্ত্রী।
নিহতের মেয়ে রূপালী বেগম সাংবাদিকদের জানান, তাদের সঙ্গে ছোটচাচা রজব আলী পঞ্চার দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক বিষয়ে গোলযোগ ছিল। গেল রাতে তাদের একটি ছাগল চাচাদের বাড়ি গেলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে গালিগালাজ করতে থাকেন। ওইসময় তার মা সেখানে গেলে বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে তাকে লাঠিসোটা দিয়ে আঘাত করতে থাকেন চাচা রজব আলী, চাচাতভাই মানিক ও জামাই সামাউল। ঠেকাতে গেলে তাকে, তার ভাই জহুরুল ও ভাবি শিউলিকেও মারধর করে তারা।
গুরুতর অবস্থায় খাদেজাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থা গুরুতর হলে তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়।
নিহতের স্বামী নাবেদ আলী সুবর্ণভূমিকে বলেন, রাতেই অ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হই। পথিমধ্যে ফরিদপুরে পৌঁছুলে সেখানেই তিনি মারা যান। পরে তাকে ফের যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসি।
যশোর জেনারেল হাসপাতালের ডাক্তার আহমেদ তারেক শামস সুবর্ণভূমিকে বলেন, মৃত অবস্থায়ই খাদেজা বেগমের লাশ হাসপাতালে আনা হয়েছে।
ঝিকরগাছা থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক সুবর্ণভূমিকে বলেন, এ ঘটনা শুনেছি। কেউ কোনও অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন