ঝিকরগাছায় সন্ত্রাসী আটক চোরাই মোটরসাইকেল জব্দ

আপডেট: 01:53:54 17/07/2017



img

স্টাফ রিপোর্টার : গত রোববার দুপুরে যশোরের ঝিকরগাছায় আওয়ামী লীগ নেতার বাড়িতে বোমা ও গুলি বর্ষণের পর রাতে পুলিশ জনি (২৮) নামে এক যুবককে আটক করেছে। তার বাড়ি থেকে পালসার ব্রান্ডের একটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে কৃষ্ণনগর গ্রামের লিয়াকত হোসেনের ছেলে।
এছাড়া আরো দুইজনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে কাগজবিহীন আরো দুটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে।
ঝিকরগাছা থানা পুলিশের একটি সূত্রে জানা গেছে, রোববার রাতে জনি, মিজানুর রহমানের ছেলে রিংকু এবং কাশিপুর গ্রামের সন্ত্রাসী বাবু ওরফে পালসার বাবুর বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। এর মধ্যে জনিকে শুধু আটক করতে পেরেছে পুলিশ। বাকিদের আটক করতে পারেনি। তবে সন্ত্রাসী রিংকু এবং বাবুর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে কাগজপত্রবিহীন দুইটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে। এর মধ্যে বাবুর বাড়ি থেকে পালসার এবং রিংকুর বাড়ি থেকে আরঅন ফাইভ ব্রান্ডের মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।
রোববার দুপুরে প্রকাশ্যে ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলামে বাড়িতে বোমা হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। বাড়ি লক্ষ্য করে ৫ রাউন্ড গুলিও ছোঁড়া হয়। কিন্তু ওই ঘটনায় কোনো হতাহত হয়নি। তবে ঝিকরগাছা বাজারে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। কিছু সময়ের জন্য যশোর-বেনাপোল আন্তর্জাতিক সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ বিরোধের জেরে মনিরুল ইসলামের বাড়িতে প্রতিপক্ষরা ওই হামলা বলে রোববার ঝিকরগাছা থানার ওসি আবু সালেহ মাসুদ করিম জানিয়েছিলেন।
এই ঘটনায় কোন মামলা হয়েছি কি-না জানার জন্য সোমবার দুপুরে মোবাইলফোনে কল করা হয়। কিন্তু ওসি ফোনকল রিসিভ না করায় তা জানা সম্ভব হয়নি।

আরও পড়ুন