ঝিনাইদহে মনোনয়নপত্র বাতিল হলো যাদের

আপডেট: 07:52:09 02/12/2018



img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষ হয়েছে।
রোববার সকাল সাড়ে দশটা থেকে জেলা প্রশাসক ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে এ কার্যক্রম শুরু হয়ে দুপুর পর্যন্ত চলে। এসময় জেলার চার সংসদীয় আসনে ৩৯ জনের মধ্যে ১৫ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল বলে ঘোষণা করা হয়। এরমধ্যে ঝিনাইদহ-১ আসনে দুটি, ঝিনাইদহ-২ আসনে ছয়টি, ঝিনাইদহ-৩ আসনে দুটি ও ঝিনাইদহ-৪ আসনে পাঁচটি মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়।
এদিকে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বিএনপির দুই হেভিওয়েট নেতা জেলা সভাপতি, সাবেক এমপি ও খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা মসিউর রহমান এবং শৈলকুপা উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল ওহাবের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। দুদকের দায়ের করা মামলায় সাজা হওয়ায় তাদের মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করা হয়। 
যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল হলো : ঝিনাইদহ-১ (শৈলকুপা) আসনে বিএনপির আব্দুল ওহাব, স্বতন্ত্র আবু বক্কর, ঝিনাইদহ-২ (হরিণাকুণ্ডু-সদরের আংশিক) আসনে বিএনপির মসিউর রহমান, বিএনপির আব্দুল মজিদ, জাকের পার্টির আবু তালেব সেলিম, স্বতন্ত্র ইউসুফ পারভেজ ও মীর রবিউল ইসলাম লাভলু, জেলা আওয়ামীলগের সাধারন সম্পাদক ও পৌর মেয়র সাইদুল করিম মিন্টু, ঝিনাইদহ-৩ (মহেশপুর-কোটচাঁদপুর) আসনে এনপিপির ইসমাইল হোসেন, জাতীয় পার্টির কামরুজ্জামান স্বাধীন, ঝিনাইদহ-৪ (কালীগঞ্জ-সদরের আংশিক) আসনে আওয়ামী লীগের (বিদ্রোহী) সাবেক সংসদ সদস্য উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান, সিপিবির ফণীভূষণ রায়, বিএনএফের ওয়াদুদুর রহমান, এনপিপির কামরুল ইসলাম এবং স্বতন্ত্র জহুরুল ইসলাম।
জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক সরোজকুমার নাথ জানান, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে ঋণ খেলাপি, সঠিক কাগজপত্র দাখিল না করাসহ বিভিন্ন কারণে ১৫ জনের প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। এবার জেলার চারটি সংসদীয় আসনে ৩৯ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন