টাকা আত্মসাতে ব্যবসায়ী, ব্যাংক কর্মকর্তা অভিযুক্ত

আপডেট: 01:50:30 03/10/2018



img

খুলনা অফিস : ব্যাংকের সাত কোটি ২৬ লাখ আত্মসাতের মামলায় খুলনার হিমায়িত মাছ রফতানিকারক এমএ ছাত্তার ও রূপালী ব্যাংকের সাবেক কর্মকর্তা আবদুর রহমানের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।
মঙ্গলবার (০২ অক্টোবর) বিকেলে জেলা জজ আদালতে এ অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। ব্যাংকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে গত বছরের ২৯ আগস্ট রূপসা থানায় এ মামলা হয়। 
এমএ ছাত্তার খুলনার মাছ প্রক্রিয়াজাতকরণ প্রতিষ্ঠান ‘বায়োনিক সি ফুডস এক্সপোর্টার্স লিমিটেড’ এবং নগরীর ‘গরীব নেওয়াজ’ ক্লিনিকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। মামলার অপর আসামি আবদুর রহমান রূপালী ব্যাংক, খুলনার শামস বিল্ডিং শাখার সাবেক উপ-মহাব্যবস্থাপক।
দুদক খুলনার পিপি অ্যাডভোকেট খন্দকার মজিবর রহমান জানান, এমএ ছাত্তার মাছ কেনার জন্য রূপালী ব্যাংক খুলনার তৎকালীন উপ-মহাব্যবস্থাপক আবদুর রহমানের সঙ্গে যোগসাজশে ছয় কোটি ৭৯ লাখ ২৬ হাজার ৭০০ টাকা ঋণ নেন। কিন্তু পরে তিনি ওই টাকা পরিশোধ না করে আত্মসাৎ করেন; যা সুদে-আসলে বর্তমানে সাত কোটি ২৬ লাখ ৩৩ হাজার ৪৯০ টাকা হয়েছে। এ টাকার মধ্যে ৭০ শতাংশ সরকারি টাকা হওয়ায় দুদক তাদের বিরুদ্ধে মামলা করে।
অভিযোগপত্রে টাকা আত্মসাতের ঘটনায় ওই দুইজনকেই দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন