ঢাকার পথে ব্রাদার টিটো মাগুরায়

আপডেট: 08:24:37 20/10/2016



img
img

মাগুরা প্রতিনিধি : ব্রাদার টিটো মাগুরা পৌঁছেছেন। শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও অব্যবস্থাপনা দূর করার লক্ষে তিনি মঙ্গলবার যশোর থেকে হেঁটে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন। বৃহস্পতিবার তিনি মাগুরা পৌঁছান।
‘শান্তির জন্য পায়ে হাঁটা’ স্লোগানে তিনি ঢাকা যাওয়ার পথে রাস্তার পাশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে যাচ্ছেন। শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ কথা বলছেন বিভিন্ন শ্রেণণি-পেশার মানুষের সঙ্গে। শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও অব্যবস্থাপনা দূর করার লক্ষে খাতায় লিপিবদ্ধ করছেন নানা পেশার মানুষের মতামত। যা তিনি ঢাকায় গিয়ে তুলে দিতে চান প্রধানমন্ত্রীর হাতে। জাতির প্রস্তাবনা জানাতে চান জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে।
যশোর শহরের স্থায়ী বাসিন্দা আলী আজম টিটো (ব্রাদার টিটো) জানান, একজন ইংরেজি, অংক বা বাংলা শিক্ষ একটি পাঠ্যবই ক্লাসে এক বছর ধরে পড়ান। প্রতিদিন ৪০ মিনিট করে ক্লাস নেন। কিন্তু তিনি ক্লাসে ছাত্রকে বোঝাতে পারেন না। তাকে বুঝতে হলে ওই শিক্ষকের বাসায় গিয়ে প্রাইভেট পড়তে হয়। প্রাইভেট না পড়া ছাত্রদের ক্লাসে গালমন্দ করা হয়। পরীক্ষায় কম নম্বর দেওয়া হয়। আর প্রাইভেট পড়লে পরীক্ষার আগে নির্দিষ্ট কিছু প্রশ্নের উত্তর রেডি করে দেওয়া হয়। পরীক্ষার খাতায় নম্বরও বেশি দেওয়া হয়।
ব্রাদার টিটো বলেন, ‘আমি ১৫ বছর ধরে শিক্ষকতার পেশায় জড়িত। কিন্তু শিক্ষাঙ্গনের সন্ত্রাস, নৈরাজ্য, অব্যবস্থাপনা, অসততা আমাকে দারুণভাবে পীড়া দেয়।’
তিনি মনে করেন, শিক্ষাঙ্গনে যে নৈরাজ্য চলছে, তা তার সন্তানের ভবিষ্যতের জন্য অশনিসংকেত। এভাবে চললে দেশের ভবিষৎ প্রজন্মের ভয়ংকর ক্ষতি হবে। যে কারণে তিনি যশোর থেকে পায়ে হেঁটে ঢাকায় রওনা হয়েছেন।
ব্রাদার টিটো বৃহস্পতিবার মাগুরা পৌঁছে শহরের একাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলেছেন।

আরও পড়ুন