তহশিলদার লাঞ্ছিত, অফিস ভাংচুর কাগজপত্র তছনছ

আপডেট: 10:05:43 15/12/2016



img

খুলনা অফিস : সরকারি ভেস্টেট প্রপার্টির (ভিপি জমি) খাজনা গ্রহণ করতে রাজি না হওয়ায় খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার সেনহাটি ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহশিলদার মো. আবুল বাশারকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে অফিসে কর্মরত থাকা অবস্থায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় অফিসের আরো তিন কর্মচারীকে মারধর এবং ভূমি অফিস ভাংচুর ও সরকারি গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র তছনছ করা হয়। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
ভূমি অফিস ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্র জানান, উপজেলার সেনহাটি গ্রামের রবীণ শেখ ভুট্টো নামে এক ব্যক্তি সেনহাটি মৌজায় অবস্থিত ৮৬ শতক সরকারি ভিপি সম্পত্তি দখলে নিতে ইউনিয়ন ভূমি অফিসে খাজনা দিতে যান। কিন্তু কর্তৃপক্ষ সরকারি সম্পত্তির খাজনা গ্রহণে অস্বীকৃতি জানালে তিনি বহিরাগতদের নিয়ে ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহশিলদার মো. আবুল বাশারকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। এ সময় তাকে রক্ষা করতে এলে কর্মচারী মাহফিল উদ্দিন, মুক্তি আজাদ ও আব্দুল কুদ্দুসকেও মারধর করা হয়। এছাড়া বহিরাগতরা অফিসের বিভিন্ন মালামাল ভাংচুর এবং সরকারি গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র নষ্ট করে।
এ ঘটনায় তহশিলদার মো. আবুল বাশার বাদী হয়ে দিঘলিয়া থানায় মামলা করেছেন। মামলায় মনিরুল ইসলাম মোল্লা, রবীণ শেখ ভুট্টো ও সোহেলের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৮-১০ জনকে আসামি করা হয়েছে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দিঘলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ‘তহশিল অফিসে হামলা, মারধর এবং ভাংচুরের ঘটনায় মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। তবে কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। অভিযান চলছে।’

আরও পড়ুন