ত্রিপুরায় ছাত্র সংসদ নির্বাচন, ব্যাপক সংঘাত

আপডেট: 03:23:26 13/09/2017



img
img

গোবিন্দ দেবনাথ, আগরতলা : ত্রিপুরায় কলেজগুলোতে ছাত্র সংসদ নির্বাচনে  খাতা খুললো বিজেপির ছাত্র সংগঠন অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ তথা এবিভিপি। 
নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন কলেজে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। আগরতলায় বীরবিক্রম মেমোরিয়াল কলেজে  দুই ছাত্র গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষে চারজন আহত হন। এমবিবি কলেজে রাত পর্যন্ত চলে গণনা। এই কলেজেও সংঘর্ষ হয়েছে। আহতদের জি বি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে এই দুই কলেজে।
মঙ্গলবার সকাল থেকে রাজ্যের বিভিন্ন কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বাচনের জন্য ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু হয়। যদিও কয়েকটি কলেজের বেশ কিছু আসনে এসএফআই এবং তাদের সহযোগী টিএসইউ প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হয়েছেন। তবে দীর্ঘ প্রায় তিন দশক বাদে ছাত্র সংসদ নির্বাচনে বাম ছাত্র সংগঠন এসএফআই বিভিন্ন মহাবিদ্যালয়ে তীব্র প্রতিরোধের সন্মুখিন হয়। এই প্রথম ত্রিপুরায় ছাত্র সংসদ নির্বাচনে এবিভিপি বিরোধী শিবির হিসেবে এসএফআই এর সামনে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে। সোনামুড়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দুটি আসন ছিনিয়ে নিয়েছে এবিভিপি।
এদিন বিকেল চারটা থেকে ভোট গণনা শুরু হয়েছে। প্রাথমিক খবরে জানা গেছে, এসএফআই-এর জয়জয়কার বহাল রয়েছে। ২২টি কলেজে ২০টি শ্রেণি প্রতিনিধি পদে এবিভিপি জয়ী হয়েছে। নির্বাচন শেষ হয়ে গেলেও কিছু কলেজে এখনো ব্যাপক সংঘর্ষ হচ্ছে। আগরতলার বীরবিক্রম মেমোরিয়াল কলেজে ছাত্র সংঘর্ষে জড়িয়ে পরেছে সিপিআইএম এবং বিজেপির মহিলা মোর্চার কর্মীরাও। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান সদর মহকুমা শাসক সমিত রায়চৌধুরী। বিশাল পুলিশ বাহিনী সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে চেষ্টা করে। ফলে আধাসামরিক বাহিনীর জওয়ানদের তলব করা হতে পরে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।
রাত ১০টায় গোটা কলেজটিলা নিরাপত্তা বাহিনীর ঘেরাটোপে। এলাকাবাসী ভয়ে জবুথবু।

আরও পড়ুন