দুই ভাইয়ের দ্বন্দ্ব, বাঘারপাড়ায় ১৪৪ ধারা

আপডেট: 12:06:31 11/03/2018



img

চন্দন দাস, বাঘারপাড়া (যশোর) : যশোরের বাঘারপাড়ায় একই স্থানে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষ ওয়াজ মাহফিল ও রাজনৈতিক কর্মসূচি গ্রহণ করায় সংশ্লিষ্ট এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। তবে আইন শৃংখলা বিঘ্ন ঘটার আশংকায় সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করেছে প্রশাসন।
বাঘারপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুরুল আলম জানান, উপজেলার জহুরপুর ইউনিয়নের চাঁদপুর গ্রামের হামিদিয়া মাদরাসা মাঠে দুই পক্ষ একই সময় একই স্থানে ওয়াজ মাহফিল ও রাজনৈতিক কর্মসূচি আহ্বান করে। বিষয়টি যশোরের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের নজরে এলে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শনিবার দুপুর ১২টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত ওই এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেন।
স্থানীয়রা জানান, জহুরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূর মোহাম্মদ পাটোয়ারীর অনুসারীরা উল্লিখিত মাদরাসা মাঠে ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করেন। অন্যদিকে নূর মোহাম্মদ পাটোয়ারীর ভাই ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান দিলু পাটোয়ারীর সমর্থকরা একই স্থানে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ সম্পর্কে আলোচনা সভা ও ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সম্মেলন আহ্বান করেন। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে প্রশাসন ১৪৪ ধারা জারি করে।
এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান দিলু পাটোয়ারী বলেন, ‘জামায়াত-শিবিরের  লোক দিয়ে ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছিল। প্রশাসন এটা বুঝতে পেরে তা বন্ধ করে দিয়েছে।’
তার সঙ্গে সুর মিলিয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বিএম শাহজালাল বলেন, ‘জহুরপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ব্যানারে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ সম্পর্কে আলোচনা সভা ও ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সম্মেলন আহ্বান করা হয়েছিল। সেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিল জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও বাঘারপাড়ার জামদিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নাজমুল ইসলাম কাজলের।’
অপরদিকে ওয়াজ মাহফিলের আয়োজক নূর মোহাম্মদ পাটোয়ারী বলেন, ‘ওয়াজ মাহফিলে জামায়াত-শিবিরের কাউকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে প্রোগ্রাম বন্ধ রাখা হয়েছে।’