দুর্ঘটনায় ইসলামী আন্দোলন নেতাসহ চারজন হতাহত

আপডেট: 08:05:53 08/09/2017



img
img

চন্দন দাস, বাঘারপাড়া (যশোর) : শুক্রবার ভোরে যশোরের ছাতিয়ানতলায় ট্রাক-প্রাইভেট কারের মুখোমুখি সংঘর্ষে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নেতাসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে আরো দুইজন।
নিহতরা হলেন, যশোর শহরতলির শেখহাটি জামরুলতলা এলাকার সাইফুল্লাহ মোল্যার ছেলে ইসলামী আন্দোলনের নেতা কণ্ঠশিল্পী মাওলানা আবু জাফর যশোরী (৩২) ও শহরতলির নূরপুর ডাকাতিয়া এলাকার সোলায়মান মিনার ছেলে হাফেজ বোরহান উদ্দিন (৩০)।
আহতরা হলেন যশোরের অভয়নগর উপজেলার রাজঘাট নতুনমাথা এলাকার তবিবুর রহমান তামিম (২১) ও মাগুরার শালিখা উপজেলার আবুজার (১৮)।
বাঘারপাড়া থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) ওয়াহিদুজ্জামান সুবর্ণভূমিকে বলেন,  'আবু জাফর যশোরীসহ চারজন বরিশালের বোরহানউদ্দিন উপজেলার পায়রা গ্রামে একটি ওয়াজ মাহফিল থেকে প্রাইভেট কারযোগে (ঢাকা মেট্রো-গ-১৪-০৫৭৭) যশোরে ফিরছিলেন। গাড়ি চালাচ্ছিলেন বোরহানউদ্দিন। ভোর ৫টার দিকে ঘুম ঘুম চোখে গাড়ি চালানোর সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের (যশোর-ট ১১-৩৪৫৫) সঙ্গে তাদের কারটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে কারে থাকা চারজনই গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাদের উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়। হাসপাতালে আনার সময় আবু জাফর ও বোরহানউদ্দিন মারা যান।'
ইন্সপেক্টর ওয়াহিদুজ্জামান জানান, ট্রাকের চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছেন। তবে, ট্রাকটি আটক করা হয়েছে।
যশোর জেনারেল হাসপাতালের মডেল ওয়ার্ডের সিনিয়র নার্স কাকলী ডাক্তার আব্দুর রহমান মোড়লের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, 'আহত দুইজনের অবস্থা শঙ্কামুক্ত নয়। ২৪ ঘণ্টা পার না হলে কিছুই বলা যাবে না।'
নিহত আবু জাফর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ যশোর সদর উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি ছিলেন।

এদিকে, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যশোর জেলা শাখার সভাপতি মিয়া আব্দুল হালিম বলেন, ‘নিহত আবু জাফর দলটির যশোর সদর উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি ও শহরের খয়েরতলা বাজার মসজিদের ইমাম ছিলেন।’
মাওলানা আবু জাফর যশোরীর নামাজে জানাজা আজ দুপুরে যশোর কেন্দ্রীয় ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হয়। পরে তাকে ঘোপ কবরস্থানে দাফন করা হয়।
নিহত জাফর স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ বহু শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে গেছেন।
মাওলানা জাফরের মৃত্যুতে শোক ও শোকহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের জেলা শাখার সভাপতি মিয়া আব্দুল হালিমসহ দলটির নেতারা।

আরও পড়ুন