দৌড়েও বাঁচতে পারলেন না ছুরিকাহত যুবক

আপডেট: 10:38:52 11/07/2018



img

খুলনা অফিস : খুলনায় দুর্বৃত্তদের ছুরির আঘাতে মেহেদী হাসান হাওলাদার নামে (২৭) এক যুবক নিহত হয়েছেন।
আজ বুধবার রাত আটটার দিকে নগরীর দোলখোলা এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।
নিহত মেহেদী হাসান নগরীর বাগমারা মেইন রোড সোনামণি স্কুল এলাকার মো. মামুন হোসেন হাওলাদারের ছেলে।
খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি (মিডিয়া) সোনালী সেন জানান, বুধবার রাত আটটার দিকে নগরীর দোলখোলা এলাকায় মেহেদী হাসান নামে এক যুবককে দুর্বৃত্তরা ছুরি মেরে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে দ্রæত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তবে কারা কী কারণে তাকে ছুরি মেরেছে, তা জানা যায়নি। এ ঘটনায় কেউ আটক হয়নি।
অপরদিকে স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যার পর মেহেদী সাতরাস্তার মোড় গরীব নেওয়াজের পেছনে ইউনুসের চায়ের দোকানে বসে ছিলেন। এ সময় কয়েক যুবক এসে তাকে মারধর শুরু করলে তিনি পালানোর চেষ্টা করেন। হামলাকারীরা তার পেটে ও গলায় ছুরি মারে। আহত অবস্থায় মেহেদী দৌড়ে এসে ইসলামপুর রোডের দোলখোলা মোড়ের কাছে লুটিয়ে পড়েন।
মেহেদী স্থানীয় এক ‘কাউন্সিলরের লোক’ হিসেবে এলাকায় পরিচিত। মাদক বিক্রির টাকা ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশ ধারণা করছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চায়ের দোকানদার ইউনুসকে আটক করেছে র‌্যাব।
মেহেদীর বাবা মামুন হোসেন বলেন, ‘আমার ছেলে এসএসসি পাশ করার পর বয়রার সাজেস পলিটেকনিকে পড়াশুনা করতো। আমি রাজমিস্ত্রির কাজ করে ছেলেকে পড়াশুনা করিয়েছি।’
মামুন হোসেন ৬৪ বাগমারা মেইন রোডের জনৈক ওহাবের বাড়ির ভাড়াটিয়া।

আরও পড়ুন