নৌকা নিয়ে ভোট করতে চান ফারুক

আপডেট: 02:56:52 10/07/2018



img

মাজহার বাবু : আসন্ন সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচন করতে চান একসময়ের দাপুটে অভিনেতা আকবর হোসেন পাঠান; যিনি নায়ক ফারুক নামেই অধিক পরিচিত।
রোববার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৬’ প্রদান অনুষ্ঠানে তেমন আভাসই দেন ফারুক। পরে গণমাধ্যমের কাছে তিনি নিজের ইচ্ছা প্রকাশ করেন। 
অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে ফারুক বলেন, ‘স্বৈরশাসক এরশাদের আমলে একবার চলচ্চিত্রের ২৫ বছর পূর্তি উৎসব হয়েছিল এফডিসিতে। সেখানে আমাকে আনার জন্য প্রশাসনের লোক বাসায় গিয়েছিল। তারা আমার কাছে জানতে চায়, আমি নাকি সব অনুষ্ঠানে গিয়ে বঙ্গবন্ধুর নাম বলি। কিন্তু এই অনুষ্ঠানে গিয়ে বঙ্গবন্ধুর নাম বলতে পারব না। তখন আমি বলেছিলাম যে বঙ্গবন্ধু আমাদের একটি রাষ্ট্র দিয়েছেন, বিনোদনের জন্য দিয়েছেন বিএফডিসি। আর তার গড়ে দেওয়া বাড়ির উঠানে দাঁড়িয়ে উনাকে স্মরণ করতে পারব না, সে হয় না। আমি যদি অনুষ্ঠানে যাই, তবে সেখানে আমি অবশ্যই বঙ্গবন্ধুর নাম বলব। তাকে স্মরণ করেই বক্তব্য রাখব। তারপর আমি ১৯ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন পেয়েছি; কিন্তু আমাকে কখনো পুরস্কার দেওয়া হয়নি, কারণ আমি বঙ্গবন্ধুর নাম বলি। ৫৭ বছর ধরে বলছি। এবার আমি অফিশিয়ালি বঙ্গবন্ধুর কথা সবার কাছে বলতে চাই।’
অনুষ্ঠানে এভাবেই সরকারের প্রতিনিধি হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করলেও ফারুক সরাসরি কিছু বলেননি। পরে সোমবার বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘অফিশিয়ালি মানে তো তাই। আমি আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচন করতে চাই। এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে একজোট হয়ে কাজ করতে চাই। তিনি হাজারো কাজে ব্যস্ত থাকেন। সব কথা সব সময় বলা যায় না। তাই গতকাল সবার সামনে উনার উদ্দেশে এই কথা বলা।’
কোন আসন থেকে নির্বাচন করতে চান জানতে চাইলে ফারুক বলেন, ‘আমি গাজীপুর-৫ আসন, কালীগঞ্জ থেকে নির্বাচন করতে চাই। আমি অনেক কিছু জীবনে পেয়েছি। এখন মানুষের হয়ে কাজ করতে চাই। শুধু চলচ্চিত্র নয়, সমাজের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কাজ করার সুযোগ থাকবে তখন। মানুষের প্রয়োজনে মানুষের সঙ্গে থেকে বাকি জীবনটা পার করতে চাই।’
নির্বাচনী এলাকায় প্রচার ও জনগণের সমর্থন বিষয়ে ফারুক বলেন, ‘আমার এলাকার সাথে সবসময়ই যোগাযোগ আছে। নেতারা সবসময় আমার বাসায় আসেন। আমিও সময় পেলে এলাকায় যাই। আর সাড়া পাওয়ার বিষয়টি হচ্ছে আমাকে তো সারাদেশের মানুষের মতো এলাকার মানুষও ভালোবাসেন। সবাই আমার অনেক কাছের মানুষ।’
ফারুক আরো বলেন, ‘আমি জীবনে কোনো কাজেই কাউকে প্রতিদ্বন্দ্বী ভাবি না। আর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ যাকে নমিনেশন দেবে, তিনি নির্বাচন করবেন। এখানে অন্য কোনো দল বা আওয়ামী লীগের কাউকে আমি প্রতিদ্বন্দ্বী ভাবি না।’
জয়ের বিষয়ে কতটা আশাবাদী জানতে চাইলে ফারুক বলেন, ‘আমি শতভাগ আশাবাদী, কারণ দেশের মানুষ এখন আওয়ামী লীগের উন্নয়নে খুশি। যে কারণে জনগণ দেশের স্বার্থে আমাদের ভোট দেবে। তাছাড়া আমাকে মানুষ অনেক ভালোবাসে।’
নির্বাচিত হলে কী করবেন জানতে চাইলে ফারুক বলেন, ‘আমি মেহনতি মানুষের হয়ে কাজ করতে চাই। এতদিন চলচ্চিত্রের মাধ্যমে মানুষের জীবন তুলে ধরেছি। বাকি দিনগুলো সেই মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াতে চাই। আওয়ামী লীগের হয়ে মানুষের সেবা করতে চাই। সমাজের যে কোনো সমস্যায় সবার পাশে থাকতে চাই।’
ফারুককে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয়। তার সঙ্গে যৌথভাবে একই সম্মাননা দেওয়া হয় নায়িকা ববিতাকে।
সূত্র : এনটিভি