নড়াইলে জমজমাট নৌকাবাইচ

আপডেট: 07:34:04 09/09/2017



img
img

মৌসুমী নিলু, নড়াইল : চিত্রশিল্পী এস এম সুলতানের ৯৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে চার দিনব্যাপী সুলতান উৎসবের চতুর্থ দিনে বিপুল উৎসাহে নড়াইলের চিত্রা নদীতে নারী ও পুরুষের নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা হয়েছে।
প্রতিযোগিতা শেষে শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যার আগে রূপগঞ্জ বাঁধাঘাটে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার। প্রাণ বেভারেজ লি. এই প্রতিযোগিতা স্পন্সর করে।
পুরুষদের টালাই গ্রুপে প্রথম হয়েছে খুলনার তেরখাদা উপজেলার নয়া বারসাত গ্রামের দিদার মেম্বরের নৌকা। দ্বিতীয় হয়েছে একই উপজেলার মাহাবুর রহমানের নৌকা। আর তৃতীয় হয় খুলনার কয়রা উপজেলার গোলাম রব্বানীর নৌকা।
কালাই গ্রুপে প্রথম নড়াইল সদর উপজেলার গুয়োখোলা গ্রামের অসীম বিশ্বাসের নৌকা, দ্বিতীয় একই উপজেলার হাতিয়াড়া গ্রামের ভীম সরকারের নৌকা এবং তৃতীয় হয়েছে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার লাহুড়িয়া গ্রামের কবীর মোল্যার নৌকা।
নারীদের প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে নড়াইল সদর উপজেলার মুশুড়ি গ্রামের সুচিত্রা বিশ্বাসের নৌকা, দ্বিতীয় পংকবিলা গ্রামের কৃপা বিশ্বাসের নৌকা এবং তৃতীয় গুয়োখোলা গ্রামের দীপালি মজুমদারের নৌকা।
নড়াইল শহরের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া চিত্রা নদীর দুই পাড়ে অর্ধ লক্ষাধিক মানুষ এ বাইচ উপভোগ করেন। নড়াইলের একটি দল বাইচ দেখতে আসাদের মাতাতে ট্রলারে সারি গানের আয়োজন করে। নড়াইল, মাগুরা, খুলনা, ফরিদপুর থেকে প্রতিযোগিতায় পুরুষদের ১৫টি এবং নারীদের পাঁচটি নৌকা চিত্রা নদীর  শেখ রাসেল সেতু থেকে এসএম সুলতান সেতু পর্যন্ত প্রায় তিন কিলোমিটার অংশে এ প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়।
প্রতিযোগিতা উপভোগ করতে উপস্থিত ছিলেন নড়াইল জেলা প্রশাসক মো. এমদাদুল হক চৌধুরী, পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম, নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা কমিটির আহ্বায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জাহিদুল ইসলাম, এস এম সুলতান ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকু, প্রাণ বেভারেজ লিমিটেডের সিইও মো. আনিসুর রহমান প্রমুখ।
বরেণ্য চিত্রশিল্পী এস এম সুলতানের ৯৩তম জš§বার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) নড়াইলের সুলতান মঞ্চে  চার দিনব্যাপী সুলতান উৎসব শুরু হয়।
সুলতান উৎসবে বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে ছিল ভারত ও বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের চারুকলা বিভাগের ৩০ জন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে আর্ট ক্যাম্প, চিত্র ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী,  আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পুরস্কার, সম্মাননা ও পদক বিতরণ এবং নৌকা বাইচ।
প্রাণআপ-এর আর্থিক সহযোগিতায় নড়াইল জেলা প্রশাসন ও সুলতান ফাউন্ডেশন এবং এসএম সুলতান শিশু চারু ও কারুকলা ফাউন্ডশন এ উৎসবের আয়োজন করে।
শিল্পী সুলতান ১৯২৪ সালের ১০ আগস্ট নড়াইল শহরের মাছিমদিয়ায় জš§গ্রহণ করেন। ১৯৯৪ সালের ১০ অক্টোবর যশোর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে তিনি মারা যান।