পাচারকালে ভিজিএফের ১৬ বস্তা চালসহ আটক ৩

আপডেট: 01:49:03 15/06/2018



img

মাগুরা প্রতিনিধি : দুস্থদের জন্য বরাদ্দ ভিজিএফের চাল কালোবাজারে বিক্রির সময় তিনজন আটক হয়েছেন। এ সময় উদ্ধার হয়েছে ১৬ বস্তা চাল। মাগুরা সদর উপজেলার কুচিয়ামোড়া ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটেছে।
শত্রুজিৎপুর পুলিশ ক্যাম্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (আইসি) মো. জাফর জানান, রাত দুইটার দিকে কুচিয়ামোড়া ইউনিয়ন পরিষদের অদূরে আমুড়িয়া বাজারে দুটি ভ্যানে করে ১৬ বস্তা চাল নিয়ে যেতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেন। এ সময় সেখানে গিয়ে ‘বিক্রয় নিষিদ্ধ’ লেখা ৫০ কেজির প্রতি বস্তা হিসেবে ৮০০ কেজি চালসহ ভ্যান দুটি আটক করা হয়। সেখান থেকে ভ্যানচালক বাবলু মিয়া, ফুলি মিয়া ও চৌকিদার আবু সুফিয়ানকে আটক করা হয়।
আটক ভ্যানচালক বাবলু জানান, গতরাতে সিদ্দিক ব্যাপারী নামে এক চাল ব্যবসায়ী তাদেরকে রাতে ইউনিয়ন পরিষদের গোডাউন থেকে ওই চাল নিয়ে মাগুরায় যেতে বলেন। ওই চাল তিনি জনগণের কাছ থেকে কিনে নিয়েছেন বলে তাদের জানিয়েছিলেন। ভ্যানচালকরা তার কথামতো চাল আনতে গেলে চৌকিদার সাত্তার গোডাউন খুলে তাদের ১৬ বস্তা মুখ সেলাই করা চাল দিয়ে দেন। সেগুলো নিয়ে চৌকিদার আবু সুফিয়ানসহ রাস্তায় বের হলে আমুড়িয়া বাজারে তাদেরকে আটক করে পুলিশ।
কুচিয়ামোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘গত বুধবার সারাদিন চাল বিতরণ করি। অবশিষ্ট ১৬ বস্তা আজ বৃহস্পতিবার দেওয়া হবে মর্মে উপস্থিত সবার স্বাক্ষর নিয়ে গুদামে রেখে তালা দিই। গুদামের চাবি সচিবের কাছে রেখে আমি চলে আসি। রাত আনুমানিক দুইটার দিকে খবর পাই, গুদামের চাল পাচারকালে আমুড়িয়া বাজারে তিনজন আটক হয়েছে। আমি এর সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করছি।’
মাগুরা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু সুফিয়ান জানান, সকালে তিনি ঘটনাস্থলে যান। আটক তিনজন ও এর সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আরও পড়ুন