পুলিশি হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা স্কুলছাত্রীর

আপডেট: 07:54:47 23/08/2019



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে পুলিশের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল লিজা খাতুন নামে এক স্কুলছাত্রী।  সে শহরতলী শেখহাটি শফিয়ার রহমান মডেল অ্যাকাডেমির নবম শ্রেণিতে পড়ালেখা করে।
লিজা যশোর সদরের ঝুমঝুমপুর সেগুনবাগান এলাকার জিয়ারুল ইসলামের মেয়ে।
শুক্রবার বেলা সাড়ে এগারটার দিকে বরযাত্রীরা আসার আগেই বিয়েবাড়িতে গিয়ে পুলিশ  বিয়ে বন্ধ করে তাকে বাল্যবিয়ের হাত থেকে রক্ষা করে।
লিজার বাবা জিয়ারুল ইসলাম জানান, যশোর সদরের ঘুরুলিয়া গ্রামের স্যানিটারি মিস্ত্রি আবিরের সাথে মেয়ের বিয়ে ঠিক করেছিলেন। গরিব হওয়ায় সংসারের খরচ মেটানো তার জন্য কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। মেয়ে যেন ভালো থাকতে পারে সেজন্য বিয়ে দিতে চেয়েছিলেন।
যশোর কোতোয়ালি থানার এসআই হায়াৎ মাহমুদ জানান, ৯৯৯ এ বাল্যবিয়ে হচ্ছে এমন ফোন পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে যান। মেয়ের অভিভাবকদের সাথে কথা বলে ও খোঁজ খবর নিয়ে তারা জানতে পেরেছেন, মেয়ে অপ্রাপ্তবয়স্ক। একারণে তারা বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন। মেয়ের অভিভাবকরাও কুফল বুঝতে পেরে বিয়ে বন্ধ রাখতে রাজি হয়ে যান।


 

আরও পড়ুন