বান্ধবী-সান্নিধ্যে থাকা যুবক ছুরিকাঘাতে নিহত

আপডেট: 04:38:24 02/12/2017



img
img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোর কালেক্টরেট পার্কে ছুরিকাহত যুবক রনি হোসেন মারা গেছেন। জেনারেল হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডের ডা. সাইদুর রহমান সন্ধ্যা ছয়টা ২৫ মিনিটে তার মৃত্যু ঘোষণা করেন।
এর আগে শুক্রবার সন্ধেয় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছিলেন রনি। তিনি তখন বান্ধবীকে নিয়ে শহরের কেন্দ্রস্থলের ওই পার্কটিতে বসে গল্প করছিলেন।
নিহত রনি শহরের শঙ্করপুর গোলপাতা মসজিদ এলাকার আলী হোসেনের ছেলে।
বান্ধবী ইভা আক্তার রত্না সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘আমার বন্ধু রনির সঙ্গে শুক্রবার বিকেলে কালেকটরেট পার্কে বসে গল্প করছিলাম। এ  সময় তিন যুবক এসে রনিকে ছুরি মেরে পালিয়ে যায়।’
রনির বন্ধু আকতার হোসেন সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘আমি এবং আমার বন্ধু রনি ও তার প্রেমিকা ইভা আক্তার রত্না কালেকটরেট পার্কে বসে কথা বলছিলাম। এসময় শঙ্করপুর রেললাইন এলাকার ফিরোজ হোসেনসহ তিনজন মিলে রনিকে ছুরি মেরে পালিয়ে যায়। পরে উপস্থিত লোকজনের সহযোগিতায় রনিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করি।’
হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডের ইন্টার্ন ডাক্তার জাহানারা ইমাম চাঁদনি সন্ধ্যায় সুবর্ণভূমিকে বলেছিলেন, ‘রনির অবস্থা খুবই আশংকাজনক। তার শরীর থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। ২৪ ঘণ্টা পার না হলে কিছু বলা যাবে না।’
এর কিছু সময় পর সন্ধে ছয়টা ২৫ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রনি মারা যান। ডা. সাইদুর রহমান জানান, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে ওই তরুণের মৃত্যু হয়েছে।
কোতয়ালী থানার এসআই আসাদুর রহমান সন্ধেয় সুবর্ণভূমিকে বলেছিলেন, ‘রনি নামে এক যুবককে ফিরোজ নামে এক সন্ত্রাসী তার লোকজন নিয়ে ছুরি মেরেছে বলে শুনেছি। আমি খবর শুনে হাসপাতালে এসেছি। পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা নেবে।’

আরও পড়ুন