বাস চাপায় দুই শিশুসহ পরিবারের চারজন নিহত

আপডেট: 03:21:52 16/01/2017



img

বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলায় যাত্রীবাহী বাসের চাপায় দুই শিশুসহ একই পরিবারের চারজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন দুজন।
সোমবার সকালে বাগেরহাট-মাওয়া মহাসড়কের ফকিরহাট উপজেলার কাকডাঙ্গা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতদের মধ্যে দুই শিশু, এক নারী ও একজন পুরুষ রয়েছেন। তারা হলেন বাগেরহাটের মোল্লাহাটের কোদালিয়া এলাকার ভ্যানচালক আজাদ শেখ (৫০), তার স্ত্রী শিখা বেগম (৪০) ও তাদের নাতি রাজু (১৩) ও নাতনি তামান্না (৮)। লাশগুলো ফকিরহাট থানায় রাখা হয়েছে।
আহত দুজন হলেন চিংড়িঘের ব্যবসায়ী হাসিবুর রহমান (২৯) ও রনি (১০)। আহতদের উদ্ধার করে ফকিরহাট উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ফকিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর রহমান বলেন, 'সকাল সোয়া ১০টার দিকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসা ‘কমফোর্ট’ নামে একটি বাস ফকিরহাটের দিকে যাচ্ছিল। ঘটনাস্থলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ব্যাটারিচালিত ভ্যানকে সামনে থেকে চাপা দেয় বাসটি।'
'এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজন নিহত হন। এ ছাড়া দুজন আহত হন।'
ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা জীবন সর্দার জানান, একটি ভ্যানে করে চালকসহ পাঁচজন যাচ্ছিলেন। সে সময় কমফোর্ট পরিবহনের একটি বাস ওই ভ্যানটিকে চাপা দেয়। এতে একই পরিবারের চারজন মারা যান।
দুর্ঘটনার পর কিছু সময় বাগেরহাট-মাওয়া মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। পুলিশ বাস ও বাসচালক জহুরুল হককে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী থেকে আটক করেছে।

আরও পড়ুন