বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে ফের ‘গায়েবি মামলা’

আপডেট: 03:54:57 09/10/2018



img

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : চৌগাছায় উপজেলা বিএনপির ৩৩ নেতাকর্মীর নামে আবারো নাশকতার মামলা দিয়েছে পুলিশ; যাকে ‘গায়েবি মামলা’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন বিএনপি নেতারা। এর আগেও চৌগাছায় একই ধরনের বহু মামলা বিএনপি-জামায়াত নেতাকর্মীদের নামে রুজু করেছে পুলিশ।
এ মামলায় দুইজনকে আটক দেখিয়েছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন, চৌগাছা পৌরসভার মালোপাড়ার মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে আল মামুন শিবলি ও জগদীশপুর গ্রামের মৃত শুকুর মণ্ডলের ছেলে জামাত আলী। ৭ অক্টোবর রাতে এ মামলা রুজু করা হয়।
মামলার অন্য আসামিরা হলেন, উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও পাতিবিলা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জহুরুল  ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ও সিংহঝুলি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইউনুচ আলী দফাদার, পৌর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক মেয়র সেলিম রেজা আওলিয়ার, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও চৌগাছা বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম চঞ্চল, পৌরসভার ইছাপুর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আনিচুর রহমান, সিংহঝুলি ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি  আব্দুল হাই, হাকিমপুর ইউনিয়ন সভাপতি  সাজ্জাদ হোসেন, নারায়ণপুর ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক দাউদ হোসেন।
আসামিদের মধ্যে আরো আছেন বিএনপি নেতা কয়ারপাড়া গ্রামের আমজেদ হোসেনের ছেলে বিএম আজিম উদ্দিন, বেড়গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত মশিয়ার রহমানের ছেলে গোলাম মোস্তফা, সিংহঝুলি গ্রামের মৃত মহাসিন দফাদারের ছেলে আলম দফাদার ও ইউনুচ আলী দফাদারের ছেলে আবু বক্কর, নারায়ণপুর গ্রামের মৃত ইরাদ আলীর ছেলে নান্নু মিয়া, ভগবানপুর গ্রামের খেজের আলীর ছেলে মশিয়ার রহমান, পাঁচনামনা গ্রামের মৃত জিনাইতুল্লাহর ছেলে জাফর মিয়া, হাকিমপুর গ্রামের মৃত মোফাজ্জেল হোসেনের ছেলে মহিদুল ইসলাম, স্বরুপপুর গ্রামের মৃত কামবক্স হাজামের ছেলে বাবলু হাজাম, একই গ্রামের মৃত সোবহান খাঁর ছেলে আলম খাঁ, চৌগাছা বাকপাড়ার মৃত অর্জুল্লার ছেলে মহসিন ও রেজাউল ইসলামের ছেলে উজ্জ্বল, ইছাপুরের তৈয়বুল্লাহর ছেলে জসিম উদ্দিন, শহরের বিশ্বাসপাড়ার মৃত মুনতাজ আলীর ছেলে হাফিজুর রহমান, একই পাড়ার শাহাজান আলীর ছেলে সোহেল ও রবিউল  ইসলামের ছেলে জিহাদ হোসেন, হুদো চৌগাছার সাবেক কাউন্সিলর মোবারক হোসেনের ছেলে সালাউদ্দিন ও সাইফুল ইসলাম, একই গ্রামের মতিয়ার রহমানের ছেলে কামরুল ইসলাম ও হাতকাটা মতিয়ার রহমানের ছেলে মফি, পাঁচনামনা গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে রাজু, স্বরুপদাহ গ্রামের মৃত মহিউদ্দিন মণ্ডলের ছেলে শামছুল আলম এবং চৌগাছা গ্রামের মিন্টু পিতা।
মামলার বাদী চৌগাছা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই আকিকুল ইসলাম এজাহারে উল্লেখ করেছেন, ‘আসামিরা ৭ অক্টোবর বিকেল চারটা ৫০ মিনিটের দিকে চৌগাছা কাঁচাবাজার এলাকায় কওমি মাদরাসা মাঠে ১০ অক্টোবর গ্রেনেড হামলা মামলার রায় প্রদানকে কেন্দ্র করে বর্তমান সরকারকে উৎখাত ও নাশকতা করার উদ্দেশ্যে গোপন মিটিং করছিল। এসময় তাদের কাছ থেকে দুটি বোমা, সরকারবিরোধী ৬২টি লিফলেট এবং একটি হোন্ডা অরনেট মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়
মামলার ব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা বিএনপির সভাপতি জহুরুল ইসলাম বলেন, পুলিশ শতভাগ মিথ্যা অভিযোগে এ মামলা দায়ের করেছে। এটি একটি ‘গায়েবি মামলা’। সারা দেশে সরকারিবিরোধীদের নামে এমন হাজার হাজার ‘গায়েবি মামলা’ দেওয়া হচ্ছে। এতে সরকারের শেষ রক্ষা হবে না।
তিনি দ্রুত এ মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

আরও পড়ুন