বিশ্বকাপে প্রযুক্তি : বাড়বে লাল কার্ড

আপডেট: 02:59:21 13/06/2018



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের আসরে রেফারিরা নিচ্ছেন প্রযুক্তির সাহায্য। ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর) নামে এই পদ্ধতিতে মাঠের কোনো সিদ্ধান্তে যদি দ্বিধা থেকে যায় তবে রিপ্লের মাধ্যমে পুনরায় সিদ্ধান্ত নেওয়ার সুযোগ থাকছে রেফারিদের সামনে। আর এমনটা হলে কিন্তু রাশিয়ার মাঠে দেখা যাবে লাল কার্ডের ছড়াছড়ি!
মোট চারটি ক্ষেত্রে রেফারিরা সহায়তা নিতে পারবেন ভিডিওর। লাল-কার্ড, উগ্র আচরণ, পেনাল্টি ও গোলের ক্ষেত্রে। বেলজিয়ামের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে রেফারিদের ভিডিও রিপ্লের সহায়তা নেওয়ার ব্যাপারটা নিয়ে গবেষণা করেছেন একদল গবেষক। আর সেই গবেষণা থেকে প্রাপ্ত পরিসংখ্যানেই দেখা গেছে রাশিয়া বিশ্বকাপে বাড়ছে লাল-কার্ডের সংখ্যা।
ইউনিভার্সিটি অব লেউয়েনে মোট ৮৮ জন রেফারির মধ্যে ভিএআর-সহ এবং রিপ্লে ছাড়া হলুদ কার্ড দেওয়ার ওপর একটি সমীক্ষা চালিয়েছেন ড. হোকিম স্পিটজ ও তার দল। সমীক্ষায় দেখা গেছে, ভিডিও রিপ্লের সহায়তা নিয়ে যেখানে ৬৩ শতাংশ সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেখানে ভিএআর সহায়তা ছাড়া নিখুঁত সিদ্ধান্তের পরিমাণ কমে দাঁড়িয়েছে ৬১ শতাংশে।
সমীক্ষা শেষে স্পিটজ মনে করছেন স্লো-মোশনে ফাউলের সিদ্ধান্তে আরো তীব্রতা আসতে পারে। ‘গবেষণা শেষে আমরা দেখতে পাচ্ছি যে ভিডিওর সহায়তা নিলে ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্বে থাকা রেফারিদের কঠিন সিদ্ধান্ত দিতে হতে পারে। সব ফুটবল লিগে ভিএআর পদ্ধতি প্রয়োগের জন্য বিশ্বকাপের সিদ্ধান্তগুলো গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করতে হবে।’
অবশ্য রেফারিদের জন্য কাজটা আরো সহজ হবে বলেই ধারণা বেলজিয়ান এই অধ্যাপকের। ‘আমাদের হাতে যে ফলাফল এসেছে তাতে দেখা যাচ্ছে স্লো-মোশন ভিডিওর ফলে রেফারিরা ফাউলের পেছনের উদ্দেশ্য আরো ভালোভাবে অনুধাবন করতে পারবেন। এছাড়াও কোন ফাউলের জন্য হলুদ কার্ড, কোনটার জন্য লাল কার্ড কিংবা কার্ড দেখাতে হবে না সেটাও বুঝতে পারবেন তারা।’
সূত্র : এনটিভি