বৃষ্টিদিনের সাজ

আপডেট: 03:43:02 17/07/2018



img

রাফিয়া আলম : ‘ও পারেতে বিষ্টি এল, ঝাপসা গাছপালা। এ পারেতে মেঘের মাথায় একশো মানিক জ্বালা। বাদলা হাওয়ায় মনে পড়ে ছেলেবেলার গান—বিষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর নদেয় এল বান।’
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বর্ণনায় উঠে আসা বাদলা দিনের এমন ছবি আধুনিক নাগরিক জীবনেও দেখা যায় বৈকি। অফিস কিংবা বাসার জানালা থেকে দেখা বৃষ্টির দৃশ্যে আজও স্মৃতিকাতর হয়ে পড়ে মন। আবার সকালবেলা কাজে বের হওয়ার আগে মেঘ-বৃষ্টির সমাগমে সাজ নষ্ট হওয়ার আশঙ্কাও উঁকি দেয় মনে।
বৃষ্টির দিনে সাজতে চাইলে এমনভাবেই সাজুন, হুটহাট ভিজে সাজটা যেন নষ্ট না হয়। রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীন বলেন, বৃষ্টির সময় চারপাশটা একটু স্যাঁতসেঁতে থাকে, ঔজ্জ্বল্য কমে যায়। মন খারাপ করা ভাবও এসে যায়। এই সময়ের সাজে তাই একটু সজীবতা আনা যেতে পারে।
হালকা ধাঁচের সাজেই ভালো দেখাবে বাদলা দিনে। পানিরোধী প্রসাধনী বেছে নেওয়ার পরামর্শও দেন বিশেষজ্ঞরা।

মেকআপ যেমন
বৃষ্টির দিনে পানিরোধী প্রসাধনী ব্যবহার করলে হঠাৎ ভিজে গেলেও সহজে মেকআপ নষ্ট হয় না। ক্রিমভিত্তিক ফাউন্ডেশন এই সময়ের জন্য ভালো। এর ওপর পানি পড়লেও তা সহজে সরে যায়, ফলে মেকআপ নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা কম। কেকভিত্তিক বা পাউডার ফাউন্ডেশনও ব্যবহার করা যেতে পারে।
মাসকারা সহজেই গলে গিয়ে পুরো মেকআপ নষ্ট করে দিতে পারে। তাই এটিও হতে হবে পানিরোধী। আইলাইনার বা কাজলের বেলাতেও খাটবে একই কথা। একসময় পানিরোধী আইলাইনার কিছুটা দৃষ্টিকটু লাগত। তবে এখন আর সেই দিন নেই। আজকাল পানিরোধী সব প্রসাধনীই সুন্দর দেখায়।
ম্যাট লিপস্টিক লাগাতে পারেন। বৃষ্টির পানি লাগলেও তা উঠে যাওয়ার ভয় নেই। হাইলাইটার বা আইশ্যাডো ব্যবহার করতে চাইলে ক্রিমভিত্তিক সামগ্রী বেছে নিতে পারেন। মনে রাখুন, চকচকে (গ্লসি) সাজ এই সময়ের উপযোগী নয়। চাইলে ক্রিমভিত্তিক ব্লাশঅন লাগাতে পারেন। তবে ক্রিমভিত্তিক প্রসাধনী ব্যবহার করলে একটু বাড়তি সতর্কতা চাই। হাত লেগে গেলে এসব ছড়িয়ে গিয়ে নষ্ট হয়ে যায়।

রং বাছাই
এই সময়ের জন্য হালকা ও সাদামাটা রং বেছে নেওয়া ভালো। সাজে একটু সতেজ ভাব আনতে পারেন। ব্লাশঅন ব্যবহার করলেও তা হালকা গোলাপি বা অন্য কোনো স্নিগ্ধ, হালকা ও মিষ্টি রঙের হলে ভালো দেখাবে। হালকা একটু আভা হলেই সুন্দর লাগবে, জানালেন আফরোজা পারভীন। গাঢ় ও উজ্জ্বল রং এড়িয়ে চলার পরামর্শও দিলেন। হালকা ও মিষ্টি টোনের লিপস্টিকও লাগাতে পারেন; ম্যাট লিপস্টিক মানেই কিন্তু গাঢ় রং নয়।

একটু নীলের ছোঁয়া
বর্ষার পরিবেশ ও প্রকৃতির সঙ্গে নীল দারুণ মানায়। নীল কাজল বা আইলাইনার ব্যবহার করা যায়। নীল স্মোকি আই অবশ্য ভালো লাগবে না। স্বাভাবিক সৌন্দর্য বজায় রেখে সাজের আধিক্য এড়িয়ে চলুন। এটিই সময়োপযোগী। কাজল-আইলাইনারও না হয় প্রতিদিন না লাগালেন। চাইলে হালকা সাজের সঙ্গে শুধু কপালে একটা নীল টিপও দিতে পারেন।

ত্বক-চুল বাঁচিয়ে
পরিবেশদূষণের কারণে বৃষ্টির পানি এখন আর শুদ্ধ নয়। তাই বৃষ্টির পানিতে ত্বক বা চুল যেন সহজেই না ভিজে যায়, সেদিকে খেয়াল রাখা প্রয়োজন। চুল বেঁধে রাখা ভালো। বৃষ্টির আগে বাতাসে ধুলা উড়লে তা খোলা চুলে আটকে যেতে পারে। চুল বেঁধে পরিপাটি করে রাখলে এলো চুলে বৃষ্টির ছাঁট লাগার সম্ভাবনাও কমে যাবে। বৃষ্টিতে চুল ভিজেই যদি যায়, বাড়ি ফিরেই চুল ধুয়ে নিতে হবে।
সূত্র : প্রথম আলো