ব্যালন ডি'অর রোনালদোর হাতে

আপডেট: 03:22:34 14/12/2016



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : বছরজুড়ে সাফল্যের দেখা পাওয়া ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোই জিতলেন ব্যালন ডি’অর। গতকাল সোমবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় ফ্রান্সের প্যারিসে জমকালো এক অনুষ্ঠানে ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনালদোর নাম ঘোষণা করে ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকী। বিশ্বজুড়ে ১৭৩ জন খ্যাতনামা ক্রীড়া সাংবাদিকের ভোটে পুরস্কারটি জিতলেন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা।
বেশ কয়েক বছর ধরেই ফ্রান্সের বিখ্যাত এই পুরস্কারের মানেই রিয়াল মাদ্রিদের ফরোয়ার্ড ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো কিংবা বার্সালোনার স্ট্রাইকার লিওনেল মেসির লড়াই।
২০০৮ সালে প্রথম ব্যলন ডি’অর জিতেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। পরের বছর ২০০৯ সালে লিওনেল মেসি। এর পরের ছয় বছর ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলার আর ফ্রান্স ফুটবলের ব্যালন ডি’অর সম্মাননা একীভূত হয়ে ২০১০ সাল থেকে দেওয়া হয়েছে ফিফা ব্যালন ডি’অর পুরস্কার।
ওই ফিফা ব্যালন ডি’অরেও একচ্ছত্র আধিপত্য ছিল গ্রহের সেরা দুই ফুটবলারেরই। ২০১০, ১১, ১২ ও ১৫ সালে পুরস্কার জেতেন লিওনেল মেসি। আর মাঝের দু্ই বছর ২০১৩ আর ১৪ সালে এই পুরস্কার গিয়েছিল ৩১ বছর বয়সী রোনালদোর হাতে।
সারা বছর ধরেই অসাধারণ খেলা রোনালদোর ব্যক্তিগত ও দলগত সাফল্য ছিল সবার সেরা। রিয়ালের হয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও পর্তুগালের হয়ে ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ জেতেন তিনি।
এই মৌসুমে এখন পর্যন্ত দল ও ক্লাবের হয়ে ২০ ম্যাচে ১৯ গোল করেছেন তিনি। গত মৌসুমে তার গোল সংখ্যা ছিল ৫৪।
পুরস্কার জিতে রোনালদো বলেন, ‘একটি স্বপ্ন আবার সত্যি হয়ে এলো।‘  ক্লাব বিশ্বকাপে খেলতে রিয়ালের হয়ে এখন জাপানে থাকা রোনালদো এই সাফল্যের জন্য তার সব সতীর্থ, জাতীয় দল, রিয়াল মাদ্রিদ ও সব সমর্থককে ধন্যবাদ দেন।
১৯৫৬ সাল থেকে ইউরোপের সেরা খেলোয়াড়কে ব্যালন ডি’অর পুরস্কার দেওয়া চালু হয়। প্রথম পুরস্কার পেয়েছিলেন স্ট্যানলি ম্যাথুস।
সূত্র : এনটিভি