ভালো হয়ে যান : চাল মজুদদারদের খাদ্যমন্ত্রী

আপডেট: 03:09:30 14/09/2017



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : বাজারে চালের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধির জন্য আড়তদার ও মজুদদারদের দায়ী করেছেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। তিনি ব্যবসায়ীদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘চাল নিয়ে চালবাজি বন্ধ করুন, ভালো হয়ে যান।’
খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘খাদ্য উৎপাদনে বাংলাদেশ স্বয়ংসম্পূর্ণ। এর পরও চালের দাম বাড়ার কোনো কারণ নেই। চালের দাম নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে। আড়তদার ও মজুদদাররা কারসাজি করে দাম বাড়াচ্ছেন।’
আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে চালের দাম নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে খাদ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
কামরুল ইসলাম বলেন, ‘বর্তমানে দেশে এক কোটি মেট্রিক টনের ওপরে খাদ্য মজুদ আছে। এই চাল কৃষকদের ঘরে আছে, আড়তদার ও মজুদদারদের হাতে আছে। শিগগিরই আমাদের আরো আড়াই লাখ মেট্রিক টন চাল আসছে।’
এই অবস্থায় দেশে কোনো খাদ্য সংকট নেই বলেও দাবি করেন খাদ্যমন্ত্রী।
সরকারি খাদ্যগুদামে খাদ্য মজুদের পরিমাণ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, সরকারের খাদ্যগুদামগুলোতে যথেষ্ট পরিমাণে খাদ্য মজুদ আছে। তবে কী পরিমাণ আছে তা জানাতে অপারগতা প্রকাশ করে তিনি।
মন্ত্রী জানান, আগামী রোববার থেকে রাজধানী ঢাকাসহ সব বিভাগীয় শহরে খোলা বাজারে চাল বিক্রি শুরু হবে।
চালের দাম বাড়ছে কেন সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, চালের দাম অবশ্যই নিয়ন্ত্রণে আসতে হবে।
রোহিঙ্গা সংকটের মধ্যেই চাল আনতে মিয়ানামারে যাওয়ার ঘটনার সমালোচনার বিষয়ে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মিয়ানমারে গিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বাণিজ্য এবং কূটনীতি এক জিনিস নয়। কিছুদিন পরে মিয়ানমারের একটি প্রতিনিধি দল আসতে পারে, সেই সময় চালের বিষয়ে আলোচনা হবে।’
সূত্র : এনটিভি

আরও পড়ুন