মণিরামপুরে উদ্ধার লাশটি যশোরের বাবলার

আপডেট: 04:35:37 11/07/2018



img
img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : মণিরামপুরে গুলিতে নিহত যুবকের পরিচয় মিলেছে। তিনি যশোর সদর উপজেলার ইছালী ইউনিয়নের হাশিমপুর গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে বাবলুর রহমান বাবলা (২৬)।
বুধবার সকালে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে এসে স্বজনরা তার লাশ শনাক্ত করেন।
নিহতের চাচাতো ভাই শতকত হোসেন সুবর্ণভূমিকে জানান, গতকাল মঙ্গলবার যশোর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পান বাবলা। এরপর তিনি নিখোঁজ হন। অনেক খোঁজ করেও স্বজনরা তার সন্ধান মেলাতে পারেননি। আজ গোলাগুলিতে একজন নিহতের খবর পেয়ে সকালে তারা মর্গে আসেন। মর্গে এসে দেখেন লাশটি বাবলার।
বাবলার বিরুদ্ধে ৭-৮টি মামলা রয়েছে বলে জানান শওকত হোসেন।
এর আগে বুধবার ভোর ছয়টার দিকে মণিরামপুর থানা পুলিশ যশোর-রাজগঞ্জ সড়কের গাঙ্গুলিয়া জামতলা-সংলগ্ন পাকা রাস্তার ওপর থেকে বাবলার লাশটি ‘উদ্ধার করে’ যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।
খেদাপাড়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই আইনুদ্দীন বলেন, ‘লাশের পরিচয় পুরোপুরিভাবে মেলেনি। শুনেছি, লাশটি যশোরের খাজুরা রোডের হাশিমপুরের বাবলার।’
তবে থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই তোবারক আলী দুপুর পৌনে একটার দিকে সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘লাশের পরিচয় আমরা এখনো পাইনি।’
মণিরামপুর থানার ওসি মোকাররম হোসেন বলেন, ‘যশোর-রাজগঞ্জ সড়কের গাঙ্গুলিয়া জামতলা-সংলগ্ন পাকা রাস্তার ওপর লাশ পড়ে থাকার খবর পেয়ে ভোর পাঁচটার দিকে এসআই আইনুদ্দীনসহ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান উদ্ধার হয়েছে।’
ওসি ধারণা করেন, দুই দল ডাকাত বা বন্দুকধারীদের মধ্যে গোলাগুলিতে ওই যুবক নিহত হয়েছেন।

আরও পড়ুন