মণিরামপুরে শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

আপডেট: 04:33:51 08/07/2018



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : মণিরামপুরে জালাল হোসেন (৪৫) নামের এক মধ্যবয়সী ব্যক্তির বিরুদ্ধে ১২ বছর বয়সী একটি শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ করা হচ্ছে। শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে শিশুটির মা বাদী হয়ে থানায় এ সংক্রান্ত মামলা করেছেন।
শিশুটি স্থানীয় একটি প্রাইমারি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী। পুলিশ শিশুটিকে হেফাজতে নিয়ে তার জবানবন্দি রেকর্ড ও ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করিয়েছে।
অভিযুক্ত জালাল হোসেন উপজেলার শেখপাড়া খানপুর গ্রামের বুলু খাঁর ছেলে। তিনি দুইবার বিয়ে করেছেন। তার দুই ছেলেসন্তানও রয়েছে। জালাল পেশায় ভ্যানচালক।
পুলিশ দুই দফা অভিযান চালিয়ে জালালকে গ্রেফতার করতে পারেনি। পুলিশের দাবি, থানায় মামলা হওয়ার খবর পেয়ে তিনি গা-ঢাকা দিয়েছেন।
শিশুটির স্বজনরা জানান, চলতি মাসের পাঁচ তারিখ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে বাড়ির পাশে গভির নলকূপে পানি আনতে যায় শিশুটি। এসময় তাকে একা পেয়ে জোর করে পাশের একটি বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে জালাল। বিষয়টি দেখতে পান পাশের এক গৃহবধূ। তিনিই শিশুটিকে উদ্ধার করেন।
স্থানীয় একটি সূত্র জানায়, মেয়েটির বাবা হতদরিদ্র ভ্যানচালক। তাছাড়া দুই জনেরই বাড়ি পাশাপাশি। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর স্থানীয়ভাবে মীমাংশার চেষ্টা চলে। কিন্তু জালাল ধরা না দেওয়ায় বিষয়টি মামলা পর্যন্ত গড়িয়েছে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ফিরোজ ইকবাল বলেন, ‘শনিবার রাতে মামলা রেকর্ড হওয়ার পর অভিযুক্ত জালালকে আটকে একবার অভিযান চালানো হয়েছে। আজ (রোববার) দুপুরের দিকে বিষয়টি তদন্তে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। আসামি পলাতক থাকায় তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।’

আরও পড়ুন