মণিরামপুরে ‘গোলাগুলিতে’ যুবক নিহত

আপডেট: 10:06:45 11/07/2018



img

আনোয়ার হোসেন, মণিরামপুর (যশোর) : মণিরামপুরে অজ্ঞাত এক যুবকের (২৬) গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার হয়েছে। দুই দল ডাকাতের মধ্যে কথিত গোলাগুলির কারণে ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে পুলিশের দাবি।
বুধবার ভোর ছয়টার দিকে থানা পুলিশ যশোর-রাজগঞ্জ সড়কের গাঙ্গুলিয়া জামতলা-সংলগ্ন পাকা রাস্তার ওপর থেকে লাশটি উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়। তার পরনে নেভি ব্লু জিন্সের প্যান্ট ও একই রঙের গেনজি এবং কোমরের ওপর একটি গামছা রয়েছে। গুলিতে লাশের মাথার খুলি উড়ে গেছে।
পুলিশ পড়ে থাকা মরদেহের ডান হাতের ওপর থেকে একটি পাইপগান, একজোড়া চামড়ার স্যান্ডেল এবং মাঠের মধ্য থেকে একটি মাফলার উদ্ধারের দাবি করেছে।
মণিরামপুর থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই তোবারক আলী বলেন, ‘ভোর পৌনে চারটার দিকে গোলাগুলির শব্দ শুনে স্থানীয় লোকজন থানায় খবর দেয়। এরপর ঘটনাস্থলে গিয়ে পাকা রাস্তার ওপর গুলিবিদ্ধ একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখা গেছে। ওইসময় ঘটনাস্থলে অন্য কাউকে পাওয়া যায়নি।’
এসআই তোবারক বলেন,ওই স্থানে মাসখানেক আগে বাস ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ধারণা করা হচ্ছে, দুই দল ডাকাতের মধ্যে গোলাগুলিতে ওই যুবক নিহত হয়েছেন।
স্থানীয়রা জানান, গাঙ্গুলিয়ার পল্লী চিকিৎসক মশিয়ার রহমান ভোর পাঁচটার দিকে রোগী দেখে ফেরার পথে রাস্তার ওপর লাশটি পড়ে থাকতে দেখেন। তার মাধ্যমে খবরটি ছড়িয়ে পড়ে।
মণিরামপুর থানার ওসি মোকাররম হোসেন বলছেন, ভোর পৌনে পাঁচটার দিকে খেদাপাড়া ক্যাম্পের আইসি এসআই আইনুদ্দিন খবর পান যে, একটি লাশ পড়ে আছে। এর পর লাশটি উদ্ধার করা হয়। দুই দল ডাকাত বা সন্ত্রাসীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে ওই যুবক মারা গেছেন বলে মনে করছেন ওসি।

আরও পড়ুন