মহেশপুরে ব্যস্ত প্রতিমাশিল্পীরা

আপডেট: 08:00:59 02/10/2018



img

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : আর মাত্র ১৩ দিন পরেই হিন্দু ধর্মাবম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। এই ধর্মীয় উৎসব উপলক্ষে মহেশপুর উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ও পৌর এলাকার ৪২টি মন্দিরে দুর্গাপ্রতিমা তৈরির কাজ চলছে জোর গতিতে।
শারদীয় দুর্গোৎসবকে পরিপূর্ণ রূপ দিতে মন্দিরগুলোতে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। প্রতিমাশিল্পীরা কল্পনায় দেবী দুর্গার অনিন্দ্যসুন্দর রূপ দিতে নিরলস কাজ করে চলেছেন। নিখুঁত হাতের কারুকার্য দিয়ে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত প্রতিমা তৈরির কাজ।
সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসবকে ঘিরে হিন্দু অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে আগাম শারদীয় উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। দুর্গতিনাশিনী দুর্গাদেবীকে বরণ করে নিতে মণ্ডপে মণ্ডপে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। ইতিমধ্যে অনেক মণ্ডপে মাটির কাজ প্রায় শেষ করে ফেলেছেন শিল্পীরা। মূর্তি গড়া শেষে রঙ-তুলির আঁচড়ে পরিপূর্ণ করে তোলা হবে প্রতিমা।
মহেশপুর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রবীরকুমার দাস বলেন, এবছর উপজেলার ৪২টি মন্দিরে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি স্থানে প্রতিমা তৈরির কাজ প্রায় শেষ। এখন শুধু রংয়ের কাজ বাকি আছে।
মহেশপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) রাশেদুল আলম জানান, প্রতিটি মন্দিরেই এখন থেকে প্রতিরাতেই পুলিশ টহল দিচ্ছে। আর পূজা শুরু হলে প্রতিটি মন্দিরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা দিনে ও রাতে জোরদার করা হবে।

আরও পড়ুন