মানুষের কোথাও নিরাপত্তা নেই

আপডেট: 01:44:05 10/12/2016



img

খুলনা অফিস : দেশে বর্তমানে মানবাধিকার লঙ্ঘনের চরম প্রতিযোগিতা চলছে। রাষ্ট্র নিজেই আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী দিয়ে মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে। অহরহই ঘটছে বিচারবহির্ভূত হত্যা, গুম, খুন, অপহরণ, ধর্ষণ ও পাচারের ঘটনা। ঘরে-বাইরে সাধারণ মানুষের কোথাও কোনো নিরাপত্তা নেই। এমনকী বাক-স্বাধীনতা, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং গণতন্ত্রও হুমকির মুখে রয়েছে। এ অবস্থায় দলমতনির্বিশেষে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে বাক স্বাধীনতা-গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার মধ্যদিয়ে মানুষের সকল অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। একইসঙ্গে দেশে ভারতীয় আগ্রাসন ও রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ এবং মিয়ানমারে গণহত্যা, ধর্ষণ-নির্যাতন বন্ধের দাবি জানানো হয়।
আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে শনিবার দেশের শীর্ষস্থানীয় মানবাধিকার সংগঠন ‘অধিকার’ খুলনা ইউনিটের পক্ষ থেকে আয়োজিত র্যা লি, মানববন্ধন ও সমাবেশ কর্মসূচিতে বক্তারা এসব কথা বলেন।
এর আগে সকাল ১০টায় নগরীর ফুল মার্কেট মোড় থেকে র‌্যালি শুরু হয়ে শহীদ হাদিস পার্কে গিয়ে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন চলাকালে অনুষ্ঠিত সমাবেশে ‘অধিকার’ খুলনা ইউনিটের ফোকালপার্সন মুহাম্মদ নূরুজ্জামান সভাপতিত্ব করেন।
প্রধান অতিথি ছিলেন বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির সভাপতি শেখ আশরাফ-উজ-জামান। বিশেষ অতিথি ছিলেন রূপসা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল্লাহ যোবায়ের। বক্তৃতা করেন সাংবাদিক এহতেশামুল হক শাওন, অ্যাডভোকেট এসএম ওয়াছিউর রহমান হিরক, সংগঠক মাহবুব আলম বাদশা, হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডার কেএম জিয়াউস সাদাত। উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক মো. মহসিন হোসেন, হারুণ-অর-রশীদ, আনিছুর রহমান কবির, হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডার এমএ আজিম, সাখাওয়াত হোসেন স্বপন, জামাল হোসেন, মো. বদরুজ্জামান, জাহেদী আরমান, মো. মিশারুল ইসলাম, শওকত হোসেন, সাকিব হোসেন, মো. শাহীন, শিক্ষক প্রদীপ কুমার বিশ্বাস, মো. আমিনুল ইসলাম, মাওলানা আবু জর, আব্দুর রহীম, বায়জিদ হোসেন, শুভাশীষ মজুমদার, মাহমুদুল ইসলাম, তারিকুল ইসলাম, নাজমুল হাসান, মো. আরিফুল ইসলাম, হাফিজুর রহমান প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা মানবাধিকার লঙ্ঘনের সঙ্গে জড়িতদের কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানান। একইসঙ্গে ‘অধিকার’র ওপর থেকে সরকারের দূরভিসন্ধিমূলক নজরদারি ও হয়রানি বন্ধ করে মানবাধিকার রক্ষায় কাজ করার সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টির দাবি জানানো হয়।

আরও পড়ুন