মারামারি ঠেকাতে গিয়ে খুন

আপডেট: 07:17:21 17/04/2019



img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ঝড়ে গাছ পড়াকে কেন্দ্র সৃষ্ট গোলযোগে রতন মণ্ডল (৪৫) নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এসময় ধারালো দায়ের আঘাতে জখম হন আরো ছয়জন।
বুধবার সকালে উপজেলার বসন্তপুর গ্রামে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।
নিহত রতন মণ্ডল বসন্তপুর গ্রামের রায়হান মণ্ডলের ছেলে। আহতরা হলেন, তৈয়ব আলী, সেকেন মণ্ডল, দুলাল মণ্ডল, কবীর মণ্ডল, বাচ্চু মণ্ডল ও আনোয়ার হোসেন।
স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার রাতে কালবৈশাখিতে সেকেন মণ্ডল নামে এক ব্যক্তির গাছের ডাল ভেঙে প্রতিবেশী ওলিয়ার রহমানের মাথায় পড়ে। এ ঘটনায় রাতেই দুই পক্ষের মধ্যে বাক-বিতণ্ডা হয়। এরই জের ধরে বুধবার সকালে গাছের ডাল পড়ে আহত ওলিয়ার রহমান ও তার লোকজন ধারালো দা নিয়ে গাছ মালিক সেকেন মণ্ডলের ওপর হামলা করে। এসময় ঠেকাতে আসে তারই চাচতো ভাই রতন মণ্ডলসহ প্রতিবেশীরা। এই সময় রতনসহ ছয়জনকে কুপিয়ে জখম করে প্রতিপক্ষের লোকজন। আহতদের উদ্ধার করে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে রতন মণ্ডল মারা গেছেন বলে চিকিৎসকরা জানান। বাকিদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
হতাহতের ঘটনা নিশ্চিত করে ঝিনাইদহের শৈলকুপা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারেক আল মেহেদি জানান, এ ঘটনার পর এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। দুপুর পর্যন্ত আটক বা থানায় কোনো মামলা হয়নি বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন