মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ

আপডেট: 03:05:44 11/12/2016



img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মনোয়ার হোসেন মালিতার বিরুদ্ধে রাজাকার ও ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্তিকরণসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন একদল মুক্তিযোদ্ধা।
রোববার দুপুরে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ডাক্তার মেহের আলী। তিনি অভিযোগ করেন, শৈলকুপা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের বর্তমান কমান্ডার মনোয়ার হোসেন মালিতা দেশ স্বাধীনের পর থেকেই যখন যে সরকার ক্ষমতায় থাকে, সেই দলে যোগদান করে দলের লেজুড়বৃত্তি করে আসছেন।
তিনি শৈলকুপার হারুনদিয়া গ্রামের আব্দুস সাত্তার, শিতলী গ্রামের নুরুন্নবী খান, বৃত্তিদেবী রাজনগর গ্রামের ফজলে এলাহী মিয়া ও দেবতলা গ্রামের আবু তালেব রাজাকারসহ অনেককে মোটা টাকার বিনিময়ে মুক্তিযোদ্ধা সনদ পাইয়ে দিয়েছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, এমনি নানাবিধ অনিয়ম ও দুর্নীতি করে দাপটের সঙ্গে তিনি একনায়কত্ব চালিয়ে যাচ্ছেন। তার এসব অনিয়মের কারণে ‘অবৈধ মুক্তিযোদ্ধাদের’ দাপটে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা তাদের প্রাপ্য সম্মান থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।
তিনি দুর্নীতিবাজ এ কমান্ডারের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান পুনঃপ্রতিষ্ঠা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের ঊর্ধ্বতন নেতাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
এ সময় উপজেলার মুক্তিযোদ্ধারা উপস্থিত ছিলেন।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শৈলকুপা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মনোয়ার হোসেন মালিতা বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।’
তিনি কোনো রাজাকার ও অমুক্তিযোদ্ধাকে মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেননি। কাউকে মুক্তিযোদ্ধা বানানোর ক্ষমতার তার নেই বলেও তিনি দাবি করেন।

আরও পড়ুন