মেয়েকে খুঁজতে গিয়ে দ্বিখণ্ডিত হলো বাবার দেহ

আপডেট: 01:09:54 08/12/2017



img

কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : কোটচাঁদপুরে মেয়েকে খুঁজতে গিয়ে ট্রেনের চাকায় দ্বিখণ্ডিত হয়ে গেল গোলাম মোস্তফা (৩৮) নামে এক বাবার দেহ। মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে আজ সন্ধ্যায় কোটচাঁদপুর রেলস্টেশনে।
স্বজনরা জানান, প্রতিবন্ধী মেয়ে ফাতেমা তার নানির সঙ্গে খুলনায় গিয়েছিল ডাক্তার দেখাতে। রাজশাহীগামী আন্তঃনগর ট্রেন সাগরদাঁড়ী এক্সপ্রেসে আজ সন্ধ্যায় কোটচাঁদপুরে ফিরে আসেন তারা। সন্ধ্যা ছয়টা ২০ মিনিটে ট্রেনটি কোটচাঁদপুর স্টেশনে থামে। মেয়েকে নিতে এসেছিলেন ইনজিনভ্যান চালক গোলাম মোস্তফা।
প্লাটফরমে মেয়েকে দেখতে না পেয়ে মোস্তফা তড়িঘড়ি করে উঠতে যান ট্রেনের কামরায়। এ সময় ট্রেনটি প্লাটফরম ছেড়ে যাচ্ছিল। পা পিছলে প্লাটফরম ও ট্রেনের মধ্যবর্তী ফাঁকে পড়ে যান মোস্তফা। তার কোমরের ওপর দিয়ে চলে যায় ট্রেনের চাকা। ঘটনাস্থলে মারা যান মোস্তফা।
কোটচাঁদপুর রেলস্টেশন মাস্টার গোলাম মোস্তফা জানান, রেলপুলিশকে (জিআরপি) খবর দেওয়া হয়েছে। তারা এসে মরদেহ নিয়ে যাবে ময়নাতদন্তের জন্য।
হতভাগ্য গোলাম মোস্তফা মহেশপুর উপজেলার জলুলী গ্রামের সেকম আলীর ছেলে।

আরও পড়ুন