যশোরে বিকাশের সাড়ে নয় লাখ টাকা ‘ছিনতাই’

আপডেট: 12:04:24 04/12/2017



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে আবু সাঈদ সবুজ নামে এক যুবকের মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে বিকাশের এক ডিস্ট্রিবিউটরের প্রায় সাড়ে নয় লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ করা হচ্ছে। রোববার বিকেলে সদর উপজেলার খিতিবদিয়া রেলক্রসিংয়ের কাছে এই ঘটনা ঘটেছে বলে থানায় দেওয়া অভিযোগে বলা হয়েছে।
বিকাশ লিমিটেডের ডিস্ট্রিবিউটর ‘জেন ইন্টারন্যাশনালের’ কর্মকর্তা সত্যনারায়ণ মজুমদার বলছেন, তিনি ওই কোম্পানির এক্সিকিউটিভ (রিস্ক ম্যানেজমেন্ট)। যশোর সদর উপজেলার আরিচপুর গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে আবু সাঈদ সবুজ ওই কোম্পানির ৩৪ নম্বর রুটের সেনানিবাস এলাকায় কর্মরত আছেন। রোববার সবুজ ওই এলাকার বিভিন্ন বিকাশ এজেন্টের কাছ থেকে টাকা কালেকশন করে বিকেলে একটি মোটরসাইকেলযোগে যশোর শহরের দিকে রওনা হন। আর তিনি মাহবুবুর রহমান নামে এক সহকর্মীকে নিয়ে আলাদা একটি মোটরসাইকেলে করে তার (সবুজের) পিছু পিছু আসতে থাকেন। বিকেল সোয়া ৪টার দিকে খিতিবদিয়া রেলক্রসিং পার হয়ে যশোর-ঝিনাইদহ সড়কে ওঠামাত্রই তিন মোটরসাইকেলে করে সাত দুর্বৃত্ত আবু সাঈদের সামনে এসে তার গতি থামায়। দুর্বৃত্তরা সঙ্গে সঙ্গে আবু সাঈদ ও তার মোটরসাইকেলের চাবি কেড়ে নেয়। একজন আবু সাঈদের মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে হত্যার হুমকি দেয়। আরেকজন টাকাভর্তি ব্যাগ কেড়ে নেয়। এ সময় আবু সাঈদ বাধা দিতে গেলে অন্য এক দুর্বৃত্ত তার পেটে ধারালো একটি লোহার বস্তু (চাকু ধরনের) দিয়ে আঘাত করে। এরপর সাত দুর্বৃত্ত তিনটি মোটরসাইকেলে করে চুড়ামনকাটির দিকে দ্রুত চলে যায়।
তিনি জানান, ব্যাগের মধ্যে নয় লাখ ৪০ হাজার ৫০০ টাকা ছিল। ঘটনার পর তারা যশোর শহরে আসেন এবং ২৫০ শয্যা হাসপাতালে আবু সাঈদ সবুজ প্রাথমিক চিকিৎসা নেন। পুলিশকে ঘটনা জানিয়ে থানায় এজাহারও দেন।
সত্যনারায়ণ বলছেন, দুর্বৃত্তদের মধ্যে তিনজন একটি পালসার ব্রান্ডের, দুইজন অ্যাপাচি ব্রান্ডের এবং বাকি দুইজন একটি প্লাটিনা ব্রান্ডের মোটরসাইকেলে ছিল।
এ বিষয়ে কোতয়ালী থানায় ওসি একেএম আজমল হুদা জানিয়েছেন, ঘটনা শোনার পর সেখানে যাওয়া হয়েছিল। আসামিরা কোথায় কী করে এবং কারা তা জানার চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন