যশোরে বোমাবাজি, যুবককে ‘গণপিটুনি’

আপডেট: 09:44:24 17/05/2018



img
img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে ‘বোমা ফাটিয়ে পালানোর সময়’ ধরা পড়েছেন মো. আশিক হোসেন নামে এক যুবক। আহত অবস্থায় তাকে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
পুলিশের দাবি, পিটুনির পর জনতা তাকে পুলিশে দেয়। এর আগে বিস্ফোরিত বোমায় রোনাল্ড বেগিং মৃধা নামে এক ট্রাফিক সার্জেন্ট সামান্য আহত হন।
ঘটনাটি ঘটেছে আজ বৃহস্পতিবার সন্ধে সাড়ে সাতটার দিকে শহরতলীর চাঁচড়া মৎস্য ভবনের সামনে। আহত আশিক রেলগেট পশ্চিমপাড়ার আব্দুল মালেকের ছেলে।
চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইনসপেক্টর রফিকুল হক সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘আমি বেতার মারফত খবর পাই, চাঁচড়া মৎস্য ভবনের সামনে বোমা মেরে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় লোকজন আশিক নামে এক যুবককে পিটুনি দিয়ে আটকে রেখেছে। ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করি। পরে কোতয়ালী থানা পুলিশের সহযোগিতায় তাকে জেনারেল হাসপাতালে পাঠাই।’
ট্রাফিক পুলিশের ইনসপেক্টর শুভেন্দুকুমার চক্রবর্তী সুবর্ণভূমিকে জানান, চাঁচড়া চেকপোস্টের পাশে মৎস্য ভবনের সামনে ট্রাফিক সার্জেন্ট রোনাল্ড বেগিং মৃধা দায়িত্ব পালন করছিলেন। এসময় আশিক নামে এক যুবক অন্য এক যুবককে লক্ষ্য করে পরপর তিনটি বোমা ছুড়ে মারে। বোমার স্প্লিন্টারে ট্রাফিক সার্জেন্ট রোনাল্ড সামান্য আহত হন। এসময় স্থানীয় লোকজন আশিককে ধরে পিটুনি দেয়।
কোতয়ালী থানার এসআই অরুণকুমার দাস সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘বোমাবাজি ও গণপিটুনির খবর শুনে আমি ঘটনাস্থলে যাই। সেসময় সেখান থেকে আহত অবস্থায় আশিক নামে এক যুবককে এনে হাসপাতালে ভর্তি করি। সে এখন পুলিশ পাহারায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।’
হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার হাবিবুর রহমান ভূঁইয়া সুবর্ণভূমিকে বলেন, আশিক নামে ওই যুবকের কনুইয়ের হাড় ভেঙে গেছে। তবে তিনি আশঙ্কামুক্ত।

আরও পড়ুন